‘মন্ত্রী হয়েছি বলে আমার সাজা হবে না, তা কিন্তু নয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক : গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ. ম. রেজাউল করিম বলেছেন, ‘আমাদের দুর্নীতি, সন্ত্রাস, মাদক ও যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। যারা আগুন সন্ত্রাস করে এবং উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি করে তাদের ক্ষেত্রে সোচ্চার হতে হবে। এই কাজগুলো আমাদের করতে হবে। আমি মন্ত্রী হয়েছি বলে আমার সাজা হবে না, তা কিন্তু নয়’।

শনিবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ সফিউর রহমান মিলনায়তনে বাংলাদেশ আইনজীবী সহকারী সমিতি আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শ. ম. রেজাউল করিম বলেন, দল-মত আমাদের থাকতে পারে। কিন্তু জাতীয় ঐক্যের ক্ষেত্রে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আমাদের দুর্নীতি, সন্ত্রাস, মাদক ও যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

তিনি বলেন, একজন প্রভাবশালী ব্যক্তি আওয়ামী লীগ, বিএনপি বা অন্য কোনো দল করেন আর সে কারণে আপনি আইনের ঊর্ধ্বে থাকবেন, তাও কিন্তু হবে না। বঙ্গবন্ধুকে খুন করার পরে তার বিচার না করার জন্য আইন করা হলো। এটা কোনো মানুষ করতে পারে?

‘গ্রামকে শহর করতে প্রধানমন্ত্রী প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কথাও ভাবছেন। আর তা না হলে, তিনি বিধবা ভাতার কথা ভাবতেন না। মাতৃত্বকালীন ছুটি বৃদ্ধি, বাড়ি-ঘরহীন মুক্তিযোদ্ধাদের সরকারি জায়গায় বাড়ি-ঘর তুলে দেয়ার কথা ভাবতেন না। রাষ্ট্রীয়, সামাজিক সূচকসহ সককিছুতেই যেন আমরা এগিয়ে থাকতে পারি, সেই বহমান উন্নয়ন যাত্রায় আমরা শামিল হয়েছি। তাই আসুন মহান মুক্তিযুদ্ধে যে স্বপ্ন নিয়ে ৩০ লাখ মানুষ রক্ত দিয়েছে সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করি’,- বলেন শ ম রেজাউল করিম।

তিনি আরও বলেন, অপারেশন ক্লিনহার্ট করে ২০০৬ সালে মানুষকে মেরে ফেললো। তারপর আইন করে বললো তাদের বিচার করা যাবে না। একাত্তরে আমার মা-বোনদের ধর্ষণ করেছে, মানুষ খুন করেছে অথচ তাদের বিচার করা যাবে না। আবার গাড়ি জাতীয় পতাকা উড়েছে তা কি হতে পারে? কখনোই না। তাই সেই অন্ধকার যুগ থেকে বেরিয়ে আসার জন্য অবিরাম পরিশ্রম করে যাচ্ছে একজন মানুষ। তিনি আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশ আইনজীবী সহকারী সমিতির সভাপতি মো. মোহাম্মদ নূর মিয়ার সভাপতিত্বে এতে আরও বক্তব্য দেন রেলপথ মন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন, বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী, ঢাকা কোর্ট আইনজীবী সহকারী সমিতির সভাপতি মো. আবদুল হান্নান, সাধারণ সম্পাদক মো. খোরশেদ আলম প্রমুখ।