বেনাপোলে দুর্ভোগের মধ্যদিয়ে ভারতমুখি পাসপোর্ট যাত্রীর উপচে পড়া ভিড়

বেনাপোলে দুর্ভোগের মধ্যদিয়ে ভারতমুখি পাসপোর্ট যাত্রীর উপচে পড়া ভিড়

এস এম মারুফ, ক্রাইম রিপোর্টারঃ দেশের বৃহত্তর স্থলবন্দর বেনাপোল দিয়ে
দিনদিন ভারতগামী পাসপোর্ট যাত্রীর লাইন দীর্ঘ হচ্ছে। আন্তর্জাতিক
প্যাসেঞ্জার টার্মিনালের ভিতরে যাত্রীদের জন্য জায়গা সংকটের কারণে
প্রতিদিনই ব্যস্ততম মহাসড়কে অবস্থান নিচ্ছে এসব যাত্রী। প্রতিটি পাসপোর্ট
যাত্রীর কাছ থেকে ৫০টাকা বন্দর ব্যবহার চার্জ নিলেও, নেই নুন্যতম যাত্রী
সেবার মান এমনই অভিযোগ করেন পাসপোর্ট যাত্রী।

বৃহষ্পতিবার (৫মে) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ভোর থেকে পাসপোর্ট যাত্রী
বেনাপোল ইমিগ্রেশন থেকে শুরু করে ঢাকা-কোলকাতা মহাসড়কে সারিবদ্ধ ভাবে
লাইনে দাড়ায়। ধিরে ধিরে প্রতিদিনের মতো পাসপোর্ট যাত্রীর লাইন দীর্ঘ হয়ে
সাদীপুর রোড বেয়ে ব্রীজ পর্যন্ত এ লাইনের শেষ হয়। প্রচন্ড গরমে রোদ্রে
এভাবে দীর্ঘ লাইন বেশ পিড়াদায়ক হলেও নীরবে সহ্য করে যাচ্ছে ভারতগামী এসব
যাত্রীরা। তবে মাঝে মাঝে ক্ষোভও দেখা যাচ্ছে পাসপোর্ট যাত্রীদের মধ্যে।

এসময় কামরুল হাসান নামে এক যাত্রী বলেন, বেনাপোল দেশের বৃহত্তর স্থলবন্দর
হলেও দিনদিন পাসপোর্ট যাত্রীর সেবার মান নিম্ন পর্যায়ের দিকে যাচ্ছে। এই
গরমে বাচ্চা নিয়ে আমরা সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে আছি। এখন দুপুর হতে গেছে
এখনো ইমিগ্রেশনের ভেতর প্রবেশ করতে পারিনি। জানিনা এ লাইনের শেষ কোথায়।

নাজিম উদ্দিন জানান, আমরা ভ্রমণ ট্যাক্স কাটবো কিন্তু হাজার হাজার
মানুষের মাঝে ছোট্ট একটা ঘরে ৩/৪ জন বসে ট্যাক্স সেবা দিচ্ছেন। এখানের
ভোগান্তী পেরিয়ে এবার টানা রোদ্রের মধ্যে দীর্ঘ লাইন।অথচ বেনাপোল বন্দর
কর্তৃপক্ষ ভ্রমণ ট্যাক্সের পাশাপাশি বাড়তি ৫০ টাকা নিচ্ছেন যাত্রীর সেবার
মান নিশ্চিত করতে কিন্তু যাত্রী সেবা বলতে এখানে কিছুই দেখছি না। তবে
যাত্রী হয়রানী পদে পদে হচ্ছি যেটা পাসপোর্ট যাত্রীদের জন্য খুবই
কষ্টদায়ক।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ রাজু বলেন,
ইমিগ্রেশনে যাত্রীদের সর্বচ্ছ সেবা দেওয়া হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, গতকাল বুধবার পাসপোর্ট যাত্রী যাতায়াত ছিল ৩৯১৯ জন।
এরমধ্যে ভারতগামী ২৬৫৬ জন ও ফেরত এসেছেন ১২৬৩ জন। তবে গতকালের চেয়ে আজ
ভারতগামী পাসপোর্ট যাত্রীর সংখ্য অনেক বেশি।