প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সমাবর্তন

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সমাবর্তন আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় সোমবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই সমাবর্তন অনুষ্ঠানে ৫৮৫৬ জনকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রদান করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

এই সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান এবং সমাবর্তন বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন বাংলাদেশে অবস্থিত কানাডিয়ান হাই কমিশনের কমিশনার বেনওয়া প্রেফন্টেন। সমাবর্তন অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়-এর প্রতিষ্ঠাতা ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজ-এর চেয়ারম্যান এম. এ. খালেক, ভাইস চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম এবং প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয় বোর্ড অব ট্রাস্টিজের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ সমাবর্তন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সলর প্রফেসর ড. আবদুল হান্নান চৌধুরী সমাবর্তন অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান দেন।

এই সমাবর্তনে ছয়জন গ্রাজুয়েটকে চ্যান্সেলর, চারজন গ্রাজুয়েটকে চেয়ারম্যান এবং পাঁচজন গ্রাজুয়েটকে ভাইস চ্যান্সেলর স্বর্ণপদক প্রদান করা হয়। এই সমাবর্তন অনুষ্ঠানে ২৬২৭ জন গ্রাজুয়েট অংশগ্রহণ করেন। প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সমাবর্তনে ৭০ শতাংশ গ্রাজুয়েট পুরুষ এবং ৩০ শতাংশ গ্রাজুয়েট মহিলা।

উক্ত সমাবর্তনে স্কুল অব বিজনেস-এর ৮৭৩ জন, স্কুল অব ইঞ্জিনিয়রিং-এর ৩৩০৩ জন, স্কুল অব ল-এর ১৪৫ জন এবং স্কুল অব সায়েন্স-এর ১৫৩৫ জনসহ সর্বমোট ৫৮৫৬ জনকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রদান করা হয়।

প্রসঙ্গত, স্কুল অব বিজনেস-এর অধীনে বিবিএ প্রোগ্রামে ৩৯৭ জন, ইন্টারন্যাশনাল টুরিজম এ্যন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট (আইটিএইচএম) বিভাগের ১২৭ জনকে স্নাতক এবং এমবিএ প্রোগ্রামের ৩৪৯ জনকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রদান করা হয়।
স্কুল অব সায়েন্স-এর অধীনে বায়োকেমিস্ট্রি বিভাগের ১০৮ জন, পাবলিক হেল্থ নিউট্রিশন (পিএইচএন) বিভাগের ৩০ জন, মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের ৬৫১ জন এবং ফার্মেসী বিভাগের ৭৪৬ জন স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।

স্কুল অব ইঞ্জিনিয়রিং-এর অধীনে আর্কিটেকচার বিভাগের ৩৭ জন, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ৭৪ জন, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইনফরমেশন টেকনোলজি বিভাগের ১৪ জন, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২১৩ জন এবং টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২৯৬৫ জনকে স্নাতক ডিগ্রি প্রদান করা হয়েছে। স্কুল অব ল’-এর অধীনে ১৪৫ জনকে ব্যাচেলর অব ল’ ডিগ্রি প্রদান করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয়ার্ধে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন বাংলাদেশের বরেণ্য ব্যান্ড শিল্পী এলআরবির প্রতিষ্ঠাতা আইয়ুব বাচ্চু ও তার সহ-শিল্পীবৃন্দ এবং প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কালচারাল ক্লাবের উদ্যোগে পরিবেশিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।