পালসারের দাম বাড়ছে

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : বাজাজ পালসারের দাম বাড়ছে। তবে বর্ধিত দাম এখনই বাংলাদেশে কার্যকর হচ্ছে না। পালসারের জন্মস্থান ভারতে পালসারের দাম বাড়ছে আট হাজার রুপি। বাজাজের অন্যান্য মোটরসাইকেলেরও দাম বাড়ছে।

ভারত সরকারের নতুন নিয়ম অনুযায়ী এখন থেকে মোটরসাইকেলের উৎপাদনাকারী প্রতিষ্ঠান এটি বিক্রির সময় পাঁচ বছরের জন্য ইন্সুরেন্স করে তারপর গ্রাহকদের হাতে বাইকটি ‍তুলে দেবে। তাই ইন্সুরেন্সের টাকার জন্য বাইকের দাম বাড়াচ্ছে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান।

১৭ বছর ধরে সড়কে রাজত্ব করছে বাজাজের স্পোটস বাইক পালসার।

এই ১৭ বছরে পালসারের বেশ কয়েকটি মডেল বাজারে এসেছে। কিন্তু এর মধ্যে জনপ্রিয় ভার্সন হলো ১৫০ সিসির পালসার। এবার এই বাইকটিকে আপডেটেড করার পরিকল্পনা নিয়েছে ভারতীয় বাজাজ।

প্রতিষ্ঠানটি চাইছে আকর্ষণীয় লুকিং, শক্তিশালী ইঞ্জিনের সমন্বয়ে ১৫০ সিসির বাজার ধরে রাখতে।

২০০১ সালে সর্বপ্রথম পালসার ১৫০ বাজারে আসে। এই কয়বছরে বেশ কয়েকটি আপডেট এসেছে বাইকটিতে। তবে এবারের আপডেটেড ভার্সন হবে সবচেয়ে আকর্ষণীয় ও কার্যকর। এর পরিবর্তন সহজেই দৃশ্যমান হবে।

বাজাজ তাদের পালসার ১৫০ কে স্পোর্টস বাইক দাবি করলেও এটি মূলত কমিউটার বাইক।

বাজাজ অটোমোবাইল ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, ১৫০ সিসির পালসারে নতুন এক্সহস্ট মাফলার ব্যবহার করা হবে। এতে ১৮০ সিসির এক্সহস্ট মাফলার সংযোজন করা হবে। এতে ব্রাশড মেটাল এবং হিট শিল্ড থাকছে। এছাড়াও বাইকটিতে নতুন ফুট পেগ এবং পেডেলে নতুনত্ব থাকছে।

নতুন ভার্সনের পালসার ১৫০ তে পাওয়ারট্রেইন ১৪৯ সিসিই থাকছে। তবে নতুন ভার্সনের বাইকে ইঞ্জিনের ঝাঁকুনি অনেক কম হবে।

সম্প্রতি বাংলাদেশের বাজারে পালসার এনএস ১৬০ বাজারে আসে। এটি এখন তরুণদের দখলে। স্বাচ্ছন্দ্যে সড়ক দাঁপাচ্ছে এনএস ১৬০।