নাগরিকত্ব ত্যাগ করলেন ঋণখেলাপী ব্যবসায়ী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের নাগরিকত্ব ত্যাগ করলেন দেশটির বহুল আলোচিত পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের (পিএনবি) সাড়ে ১৩ হাজার কোটি টাকা জালিয়াতির হোতা নীরব মোদির চাচা ও ঋণখেলাপী ব্যবসায়ী মেহুল চোকসি। ভারত সরকার যাতে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে না পারে সেজন্য জমা দিয়েছেন ভারতীয় পাসপোর্টও।

চলতি বছরের শুরুর দিকে দেশটির সংবাদসংস্থা এএনআইকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, আজ অথবা আগামীকাল এই সরকারের আমলে দেশত্যাগী ঋণখেলাপী ব্যবসায়ীদের ফিরিয়ে আনা হবে। দেশের টাকা যারা চুরি করেছে কড়ায় গণ্ডায় সেই টাকা আদায় করবে সরকার।

২০১৭ সালে অ্যান্টিগুয়ার নাগরিকত্ব পান ব্যাংক জালিয়াতিতে অভিযুক্ত মেহুল চোকসি। তার কয়েকদিন পরই পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক কেলেঙ্কারিতে নাম জড়ায় মেহুলের; শুরু হয় তদন্ত।

চোকসি আদালতকে জানান, তার শরীরের অবস্থা ভালো নয়। সে কারণে অ্যান্টিগুয়া থেকে ৪১ ঘণ্টা ভ্রমণ করে ভারতে আসতে পারবেন না তিনি। বিমানের এই ভ্রমণ করার মতো শারীরিক সক্ষমতা নেই বলেও দাবি করেন তিনি।

তবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে তদন্তে সবরকমের সাহায্য করতে কোনো আপত্তি নেই তার।

ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম বলছে, ইডির বিরুদ্ধে আদালতকে সঠিক তথ্য না দেয়ার ব্যাপারে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। চোকসি বলেন, তার শারীরিক অবস্থার কথা আদালতকে বলা হয়নি। এমনকি তিনি ব্যাংকের সঙ্গে যোগাযোগ করে সব অর্থ ফিরিয়ে দিতে চান সেই কথাও ইডি আদালতকে বলেনি।