দফায় দফায় সংঘর্ষে জবি ছাত্রলীগ, আহত ২

জবি প্রতিনিধি : ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীকে র‌্যাগ দেয়াকে কেন্দ্র করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। এক পর্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার ভাঙচুর করেছেন নেতাকর্মীরা। এ সময় নোমান ও জোবায়ের আল মাহমুদ নামে দুই ছাত্রলীগ কর্মী আহত হয়েছেন।

রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাস্কর্য ও ক্যান্টিনের সামনে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, গতকাল শনিবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মানবিক শাখার ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সাতক্ষীরা থেকে আগত ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী এক পরীক্ষার্থীকে র‌্যাগ দেয়াকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে আজ দুপুর সাড়ে ১২টায় সমাজকর্ম বিভাগের ১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ও জবি শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি তরিকুল ইসলামের অনুসারী নোমানকে সাধারণ সম্পাদক জয়নুল আবেদীন রাসেলের কর্মীরা মারধর করেন। মারামারির এক পর্যায় নোমানের মাথা ফেটে যায়। পরে দুপুর একটায় সভাপতি গ্রুপের কর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ও সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের কর্মী জোবায়ের আল মাহমুদকে মারধর করেন। এসময় উভয় পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। এক পর্যায়ে ক্যাম্পাসে অবস্থিত শহীদ মিনারও ভাঙচুর করেন নেতাকর্মীরা।


জবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তরিকুল ইসলাম বলেন, গতকাল ভর্তিচ্ছু এক শিক্ষার্থীকে র‌্যাগ দেয়াকে কেন্দ্র করে নিজেদের মধ্যে একটু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। আবার সেটা মীমাংসা হয়ে গেছে।

মারামারির বিষয়ে জবির সহকারী প্রক্টর মোস্তফা কামাল বলেন, নোমান নামের এক শিক্ষার্থী লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রশাসন ব্যবস্থা নেবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অমান্য করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার ভাঙচুরের বিষয়ে তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত সবকিছুই বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্পদ। আর বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্পদ নষ্ট করলে তারা কখনোই ছাড় পাবে না। যারা এমন ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।