তোলা যাবে না ডেসটিনির জব্দের অর্থ

নিজস্ব প্রতিবেদক : আলোচিত মাল্টিলেভেল মার্কেটিং (এমএলএম) কোম্পানি ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. রফিকুল আমিনের জব্দকৃত অর্থ (টাকা) উত্তোলন চেয়ে করা আপিল খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এই আদেশের ফলে ব্যাংক থেকে টাকা তুলতে পারবেন না রফিকুল আমিন। বিষয়টি জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।
সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে রফিকুল আমিনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার আজমালুল হোসেন কিউসি ও ব্যারিস্টার এম. মইনুল ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রোনা নাহরিন ও এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. খুরশিদ আলম খান।

২০১২ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর দুদকের উপ-পরিচালক মো. মোজাহার আলী সরদার ডেসটিনি গ্রুপের বিভিন্ন ব্যাংকে থাকা ৩০টি অ্যাকাউন্ট জব্দের আবেদন জানায়। এরপর ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ অ্যাকাউন্টগুলো জব্দ রাখার আদেশ দেন।

২০১৬ সালের ২ ফেব্রুয়ারি রফিকুল আমিন টাকা তোলার আবেদন মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ আবেদন নামঞ্জুর করেন। পরে এ আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে ২০১৬ সালের ৫ এপ্রিল আপিল করা হয়। সেই আপিলের শুনানি নিয়ে সোমবার আবেদনটি খারিজ করে দেন হাইকোর্ট।

প্রসঙ্গত, মামলার বিবরণ অনুসারে ডেসটিনি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড ও ডেসটিনি ট্রি প্ল্যানটেশনের অর্থবছর ২০০৯-২০১০ থেকে ২০১৩ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত এক হাজার ১৭৮ কোটি ৬১ লাখ ২৩ হাজার ২০৪ টাকা স্থানান্তর ও হস্তান্তরের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ করেন বলে অভিযোগ ওঠে। পরে বিষয়টি তদন্ত করে দুদকের উপ-পরিচালক তৌফিকুল ইসলামসহ ২২ জনকে আসামি করে ২০১২ সালের ৩১ জুলাই কলাবাগান থানায় মামলা করেন।

Inline
Inline