তেজগাঁও বিমানবন্দর রাজধানীর দ্বিতীয় বিমানবন্দর হিসেবে থাকবে: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা, ২৭ অক্টোবর, ২০১৮ : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানীর দ্বিতীয় বিমানবন্দর হিসেবে তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরের কার্যক্রম অব্যাহত রাখার ওপর জোর দিয়েছেন। তিনি আজ ঢাকায় বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বাশার ঘাঁটিতে ভিভিআইপি কমপ্লেক্স উদ্বোধনকালে এই কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের প্রথম আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর তেজগাঁও বিমানবন্দর বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর আওতাভূক্ত হবে। এই বিমানবন্দরের কার্যক্রম বন্ধ করা হবে না এবং এটি বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ঘাঁটি হিসেবে থাকবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রত্যেকেরই বিমানবন্দরের আশপাশে বহুতল ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা ত্যাগ করা উচিৎ।’

শেখ হাসিনা বলেন, এক শ্রেণির মানুষ এই বিমানবন্দরটি বিমানবাহিনীর কাছ থেকে নিয়ে যেতে চেয়েছিল। কিন্তু আমি যতদিন ক্ষমতায় আছি, আমি তা হতে দেব না। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বিমানবন্দরটির উপযোগিতা বাড়ানো এবং বিভিন্ন উপলক্ষে এখান থেকে বিমান পরিচালনার আহ্বান জানান।

এ সময় অনুষ্ঠানে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, তিন বাহিনী প্রধানগণ এবং বিমান বাহিনীর অন্যান্য জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।