তিতুমীর কলেজে ছাত্রলীগের গোপালগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ : আহত ৭

তিতুমীর কলেজে ছাত্রলীগের গোপালগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ : আহত ৭

তিতুমীর কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত সাতজন আহত হয়েছেন। আজ শনিবার এ ঘটনা ঘটে।

আহত শিক্ষার্থীদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে কাউকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়নি।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানিয়েছে, বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কলেজের তথ্যকেন্দ্রের সামনে সংঘর্ষের সূত্রপাত ঘটে। একপর্যায়ে দুই পক্ষের নেতা-কর্মীদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া চলে। তথ্যকেন্দ্রের সামনে সংঘর্ষে মূলত সাতজন আহত হন। আহতরা হলেন সুমন (২৬), বিল্লাল হোসেন (২২), জয় (২০), আবুবকর (২২), সালাউদ্দিন (২০), আজিজ (২৫) ও মোস্তফা (২৫)। এদের সবার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায়। তাঁরা সবাই তিতুমীর কলেজের ছাত্র।

কলেজ অধ্যক্ষ আবু হায়দার বলেন, “আমি অডিটোরিয়ামের অনুষ্ঠানে ছিলাম। বেলা ১২টার দিকে শুনি বাইরে গণ্ডগোল হচ্ছে। বেরিয়ে দেখি দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ চলছে।” পুলিশ এসে বেলা সোয়া ১টার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে বলে জানান তিনি।

পুলিশ বলেছে, তিতুমীর কলেজে ছাত্রলীগের গোপালগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। আর আহতরা বলেছেন, তিন দিন আগে গোপালগঞ্জের একজন ছাত্রলীগ কর্মীর হামলার জের ধরে আজ তাদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে।

Leave a Reply