গোপালগঞ্জ-কাশিয়ানী ট্রেন চলাচল উদ্বোধন হতে যাচ্ছে অক্টোবরে

এম শিমুল খান, গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জ থেকে কাশিয়ানী পর্যন্ত ৪৪ কিলোমিটার নতুন রেলপথ স্থাপন কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বুধবার সারা দিন এ রেল লাইনে পরীক্ষা মূলক ভাবে ট্রেন চলাচল করেছে। আগামী মাসে এটি উদ্বোধন করা হবে বলে জানিয়েছেন রেল কর্মকর্তারা।

বাংলাদেশ রেলওয়ের কর্মকর্তারা নতুন স্থাপিত রেল লাইনের উপর দিয়ে ট্রেনে চড়ে বেলা ১টার দিকে কাশিয়ানী থেকে গোপালগঞ্জ স্টেশনে এসে পৌঁছান। এ সময় তারা বিভিন্ন স্থানে থেমে ট্রেন চলাচলের উপযোগী কিনা তা পরীক্ষা করে দেখেন। ১২’শ ৫৮ কোটি টাকা ব্যয়ে নতুন এ রেলপথ স্থাপন করা হয়। এর ফলে জেলার আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ঘটবে বলে মনে করছে গোপালগঞ্জবাসী।

বাংলাদেশ রেলওয়ের পরিদর্শক খন্দকার শহীদুল ইসলাম বলেন, এ রেল লাইনের উপর দিয়ে রেল চলাচলের উপযোগী হয়েছে। আগামী মাসের যে কোনও সময় এটি উদ্বোধন করা হবে।

দুটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ম্যাক্স ও তমা গ্রুপ গত ২০১৫ সালের নভেম্বরে কাজ শুরু করে। ইতোমধ্যে তারা কাজ শেষ করেছে। এখন শুধুমাত্র কোথাও কোনও ত্রুটি রয়েছে কিনা তা পরীক্ষা করে দেখছে। গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী থেকে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোবরা পর্যন্ত ৪৪ কিলোমিটার রেললাইন সম্প্রসারণ করা হয়েছে।

নিম্নাঞ্চল হিসেবে খ্যাত গোপালগঞ্জ জেলা সদরে রেল লাইন স্থাপন হওয়ায় গোপালগঞ্জবাসী খুবই আনন্দিত। তারা এখন অল্প খরচে এবং নিরাপদে ভ্রমণ করতে পারবে, যেতে পারবে দেশের বিভিন্ন স্থানে। এই রেল লাইন উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে জেলাবাসীর দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে।

Inline
Inline