খালেদার স্বাস্থ্যের অবনতির জন্য সরকার দায়ী: মওদুদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতির জন্য সরকারকে দায়ী করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ। তিনি বলেছেন, ‘সরকারের অবহেলা ও তাদের নিষ্ঠুর আচরণের কারণে আমর সবাই উদ্বিগ্ন। সরকারের উচিত ছিল নিজ উদ্যোগে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা। কিন্তু তারা তা করেনি। আমাদের হাইকোর্ট পর্যন্ত যেতে হয়েছে। হাইকোর্ট থেকে অর্ডার নিতে হয়েছে মেডিকেল বোর্ড করা হবে। মেডিকেল বোর্ড নানা রকম বিশ্লেষণ করে সুপারিশ করেছেন কি ধরনের চিকিৎসা তার প্রয়োজন। কিন্তু আজ পর্যন্ত সেই সুপারিশ সরকার বাস্তবায়ন করেনি।’

বুধবার (৬ মার্চ) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে এসব কথা বলেন মওদুদ।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এ মানববন্ধন আয়োজন করা হয়।

মওদুদ বলেন, ‘গতকাল আমাদের নেতৃবৃন্দ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু কেন আলোচনা করতে হবে। এ মেডিকেল বোর্ডই বলে দিয়েছে কী করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘এখন তারা জেলকোডের অজুহাত তুলেছে। জেলকোড অনুসারে চিকিৎসা হবে। এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। জেলকোডে এটাও তো লেখা আছে, কোনো আসামি কোনো বন্দি যদি কোনো চিকিৎসক দ্বারা চিকিৎসা করিয়ে থাকেন তাহলে তাকে সেই চিকিৎসকের মাধ্যমে চিকিৎসা করতে হবে। আসলে তারা চান বেগম জিয়া আরও অসুস্থ হয়ে পড়ুক, আরও দুর্বল হয়ে পড়ুক, যাতে দলের নেতৃত্ব দিতে না পারেন।’

মওদুদ আরও বলেন, ‘সরকারের রাজনৈতিক প্রভাবে আর হিংস্র নীতির কারণে আমরা খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে আপ্রাণ চেষ্টা করেও মুক্ত করতে পারিনি। আমরা চেষ্টা করেছি, চেষ্টা করে যাব। আমরা মনে করি, তার মুক্তি আসবে রাজপথের মাধ্যমে। আন্দোলন ছাড়া কোনো বিকল্প নেই।’

তিনি বলেন, ‘সরকারের ইচ্ছার ওপর নির্ভর করবে খালেদা জিয়ার মুক্তি। কারণ এ আদালতের ওপর তাদের যে রাজনৈতিক প্রভাব। তার মুক্তি সম্ভবপর হবে না যদি না আমরা রাজপথের আন্দোলনে সজাগ হই।’

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে স্বাগত বক্তব্য দেন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মো. আকরামুল হাসান।

এ ছাড়া গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. আব্দুল মঈন খান, মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, ডা. এজেএড এমন জাহিদ হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে গতকাল মঙ্গলবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।