খাদ্য প্রক্রিয়াজাতে সহযোগিতায় আগ্রহী জাপান

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশে কৃষিপণ্য বাজারজাতকরণ ও খাদ্য প্রক্রিয়াজাতে সহযোগিতা করতে জাপান আগ্রহী বলে জানিয়েছেন দেশটির রাষ্ট্রদূত হিরোয়াসু ইজুমি। (আজ) বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাকের দেখা করে জাপানের এ আগ্রহের কথা জানান হিরোয়াসু।

মন্ত্রীকে রাষ্ট্রদূত বলেন, অবকাঠামো উন্নয়নে সহযোগিতা করতে চায় জাপান । অতীতের মতো বাংলাদেশের সকল ক্ষেত্রে জাপানের সহযোগিতা থাকবে। স্বাধীনতার পর থেকেই বাংলাদেশের অবকাঠামো উন্নয়নে পাশে থাকা জাপান এবার কৃষি উন্নয়নেও কাজ করতে চায়।

এ সময় কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, জাপান বাংলাদেশে বিনিয়োগ করেছে, অংশীদারিত্ব গড়ে তুলছে, বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক নিবিড় করেছে। জাপান শুধু বাংলাদেশের উন্নয়নের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদারই নয়, আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে দুই দেশ পরস্পরকে সহযোগিতা দিয়ে আসছে। স্বাধীনতার পর বাংলাদেশের দুর্দিনে যেসব দেশ বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে এগিয়ে এসেছে জাপানের স্থান সবার ওপরে। বাংলাদেশের কৃষি উন্নয়নে জাপানের সহযোগিতা দ্রুত উন্নয়নের পথ দেখাবে। জাপান বাংলাদেশকে কৃষি, খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ,কৃষিপণ্যের মূল্যসংযোজন ও ইরিগেশনে, সোলার ইরিগেশনসহ ও প্রশিক্ষণ এবং অবকাঠামো উন্নয়নে জাপানি সহযোগিতা থাকবে বলে উল্লেখ করেন রাষ্ট্রদূত।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, আমাদের পোল্ট্রি শিল্প এখন ঘুরে দাঁড়িয়েছে, যদিও মূল্য যথেষ্ট পাচ্ছে না, আর্ন্তজাতিক বাজারে প্রবেশেও সমস্যা রয়েছে। আমাদের দুধ,সবজি ও ফলেও উৎপাদন ভালো, কিন্তু সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াজাত ব্যবস্থা না থাকায় স্থানীয় বাজারের মূল্য পাচ্ছি না এবং আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশও সহজ হচ্ছে না।
মন্ত্রী বলেন, আমাদের ভুট্টা উৎপাদনও ভালো, তারপরও উৎপাদিত ভুট্টা সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াজাতকরণ ব্যবস্থা না থাকায় আমদানি করতে হয়। এক্ষেত্রে জাপান আমাদের সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।