কোন পোশাকের সঙ্গে কেমন হবে ঈদের সাজ?

কোন পোশাকের সঙ্গে কেমন হবে ঈদের সাজ?

লাইফস্টাইল ডেস্ক : ঈদে ছোট-বড় সবাই বাহারি পোশাকে নিজেকে সাজান। ঈদের দিনকে ঘিরে সবার মনে থাকে আনন্দ ও উল্লাস। এই দিনে কি খাবেন, কী পরবেন, কোথায় যাবেন, এসব বিষয় নিয়ে আগে থেকে পরিকল্পনা শুরু করেন অনেকেই।

ঈদের পোশাক নিয়ে সবার মনেই নানা পরিকল্পনা থাকে। বিশেষ করে ঈদের দিন নারীরা পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে কেমন মেকআপ করবেন তা নিয়ে চিন্তিত থাকেন।

আসলে ঈদের সাজ সুন্দর না হলে যেন ঈদ উৎসবই ম্লান হয়ে যায়। তবে সাজসজ্জার আগে অবশ্যই আবহাওয়ার দিকে নজর রাখা জরুরি। কোন পোশাক পরছেন ও কীভাবে সাজছেন তা অনেকটাই আবহাওয়ার উপর নির্ভর করে।

বর্তমানে নো মেকআপ বা ন্যাচারাল মেকআপ লুকই সব নারীর পছন্দের। বিশেষ করে দিনের বেলায় হালকা মেকআপে সাজা বুদ্ধিমানের কাজ। আর রাতের মেকআপ একটু ভারি হলে ক্ষতি নেই।

ঈদে কেমন পোশাকের সঙ্গে কীভাবে সাজবেন চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক-

নারীর সাজ-পোশাক যেমন হবে-

ঈদের দিন একটু আরামদায়ক পোশাক পরাই ভালো। এক্ষেত্রে হালকা সুতি হলে বেশি ভালো হয়। সকালে যেহেতু সবাই কর্মব্যস্ত সময় কাটানা, তাই এ সময় বেছে নিন পাতলা ও হালকা রঙের পোশাক। সুতি হলে বেশি ভালো হয়। এ সময় সালোয়ার কামিজ, কুর্তি, টপস, স্কার্ট ইত্যাদি পরতে পারেন।

সকালের মেকআপের ক্ষেত্রে ত্বক পরিষ্কার করে টোনার ও ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। সানস্ক্রিন লাগাতে ভুলবেন না। এরপর স্কিন টোনের সঙ্গে মিলিয়ে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। তারপর ফেস পাউডার লাগিয়ে নিন।

এরপর আইব্রো এঁকে নিন। চোখে কাজল পরতে চাইলে কালো না পরে ব্রাউন কালার বেছে নিন। ঠোঁটে ন্যাচারাল কালারের লিপস্টিক লাগিয়ে নিন। চুল ফ্রেঞ্জ বেণী করে নিন কিংবা খোঁপা করুন।

ঈদের দিন দুপুরে রোদের মধ্যে বাড়িতেই থাকুন। এখন যেহেতু গরম আর এ সময় দুপুরে বাইরে বের হওয়া উচিত নয়। দুপুরে হালকা রঙের পোশাক বেছে নিন। এ সময়ও মেকআপের আগে সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।

সাজের ক্ষেত্রে ফাউন্ডেশনের সঙ্গে পাউডার মেখে হালকা করে ব্লাশন বুলিয়ে নিন দুই গালে। চোখের সাজে ভিন্নতা আনতে শ্যাডো আর আইলাইনার দিন। ঠোঁটে এ সময় হালকা গোলাপিরঙা লিপস্টিক দিতে পারেন।

এদিন রাতে সাজুন নিজের ইচ্ছেমতো। বাইরে গেলে শাড়ি বা সালোয়ার কামিজ পরুন। সাজের সময় মুখ ও গলায় ফাউন্ডেশন দিন। সাজ দীর্ঘক্ষণ ভালো রাখতে স্পঞ্জ পানিতে ভিজিয়ে মুখে চেপে মেকআপ বসিয়ে নিন। চোখে মাশকারা, আইলাইনার ও গাঢ় রঙের শ্যাডো ব্যবহার করুন।

রাতে উজ্জ্বল রঙের পোশাক পরুন। আবার পোশাক যদি বেশি গর্জিয়াস হয় তাহলে মেকআপটাও একটু উজ্জ্বল করুন। চোখের সাজে গ্লিটার আইশ্যাডো কিংবা কালারফুল আইলাইনার ব্যবহার করতে পারেন।

ফলস আইল্যাশ পরলে চোখ আরও সুন্দর ও আকর্ষণীয় দেখাবে। রাতে ব্লাশনের রং হালকা রাখাই ভালো। চাইলে হাইলাইটার ব্যবহার করুন। হালকা রঙের লিপস্টিকই রাতের সাজের জন্য বেশি মানানসই হবে। রাতে ইচ্ছেমতো চুল ছেড়ে রাখতে পারেন আবার বাঁধতেও পারেন।

পুরুষের সাজ-পোশাক যেমন হবে

পুরুষেরা ঈদের নামাজের জন্য হালকা রঙের পাঞ্জাবি বেছে নিতেন। এখন অবশ্য গাঢ় রঙের পাঞ্জাবিও পরে থাকেন অনেকে। নামাজে যাওয়ার সময় সুগন্ধি ব্যবহার করতে ভুলবেন না। এক্ষেত্রে আতর ব্যবহার করাই ভালো।

আর ঈদের দিন বিকালে বা সন্ধ্যায় পাঞ্জাবি-পায়জামার চেয়ে ভালো হবে শার্ট-প্যান্ট পরা। ইচ্ছে করলে পরতে পারেন রঙিন টি-শার্ট ও প্যান্টও। ঈদের দিনের সাজগোজ করার আগে খেয়াল রাখুন আবহাওয়ার কথাও।