কারামুক্ত হলেন আরও নয় শিক্ষার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক : নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনের সময় ভাঙচুর, উস্কানি ও পুলিশের কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে করা মামলায় গ্রেপ্তার আরও নয় শিক্ষার্থী জামিনে মুক্তি পেয়েছেন।

সোমবার সকাল পৌনে নয়টার দিকে কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পান তারা। এর আগে গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্ত হন আরও নয় শিক্ষার্থী।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ডেপুটি জেলার মোহাম্মদ জাহিদুল আলম জানান, নয়জনের জামিননামা বুঝে পাওয়ায় সকালে তাদের মুক্তি দেওয়া হয়েছে। কারাগারে বন্দী অন্য শিক্ষার্থীদের জামিনের কাগজপত্র হাতে পেলে তাদেরও ছেড়ে দেওয়া হবে।

সকালে যে নয় শিক্ষার্থী জামিনে মুক্তি পেয়েছেন তারা হলেন, বাড্ডা থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার হওয়া সাউথ ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের ছাত্র জাহিদুল হক, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের টেক্সটাইল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র নূর মোহাম্মদ, ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র এ এইচ এম খালেদ রেজা, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের একই বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র রেদওয়ান আহমেদ, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র রাশেদুল ইসলাম, ভাটারা থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার হওয়া নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র শাখাওয়াত হোসেন, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ তৃতীয় বর্ষের ছাত্র আজিজুল করিম, ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশের (আইইউবি) বিবিএ চতুর্থ বর্ষের ছাত্র সিহাব শাহরিয়ার ও ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র তরিকুল ইসলাম।

ঢাকার থানা ও আদালত-সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনের সময় সংঘাত, ভাঙচুর, উস্কানি ও পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে পুলিশ এ পর্যন্ত ৫১টি মামলায় ৯৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। তাদের মধ্যে ৫২ জন শিক্ষার্থী। গতকাল ঢাকার আদালতে জামিন চেয়ে ৪২ শিক্ষার্থীকে জামিন দেয় আদালত। এরপর আজ সকাল পর্যন্ত ১৮ শিক্ষার্থী কারামুক্ত হন।