কাঁচা টমেটো খেলে কী হয়?

কাঁচা টমেটো খেলে কী হয়?

লাইফস্টাইল ডেস্ক : বাজারে এখন কাঁচা টমেটো বেশ সহজলভ্য। শুধু টমেটো নয় শীত আসতেই বাজারে ভরে ওঠে রংবেরঙের শাক-সবজি।

সব ধরনের শাক-সবজিই শরীরের জন্য অনেক উপকারী। সব সময় তো লাল টমেটোর দেখা মেলে, এখন নিশ্চয়ই কাঁচা টমেটো খাচ্ছেন!

জানেন কি এই কাঁচা টমেটো খেলে কী হয়? লাল টমেটোর চেয়েও সবুজ টমেটো স্বাস্থ্যের জন্য বেশি উপকারী।

রান্নায় যদি সবুজ টমেটো দেওয়া হয়, সেক্ষেত্রে এর স্বাদ যেন আরও বেড়ে যায়। আবার লাল টমেটো যেমন কাঁচা খাওয়া যায় সেরকম এই টমেটোও সালাদ করে খেতে পারেন।

এক কাপ বা ২৪০ গ্রাম কাঁচা টমেটোয় আছে প্রায় ১৫ মাইক্রোগ্রাম ভিটামিন কে এবং প্রায় ৪৫ মিলিগ্রাম খনিজ ফসফেট। এই দুটোই বাতের ব্যথা কমাতে ও হাড় ক্ষয় রোধে কার্যকর ভূমিকা রাখে।

কাঁচা টমেটোতে ভিটামিন সি ও ই এর পরিমাণও বেশি। এ ছাড়া পাকা ও কাঁচা দুই ধরনের টমেটোতেই লাইকোপিন নামের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে প্রচুর পরিমাণে।

সবুজ টমেটোতে থাকে লাল টমেটোর চেয়েও বেশি পরিমাণ ভিটামিন সি। আর তাই শরীরে ইমিউনিটি পাওয়ার বাড়িয়ে তোলার ক্ষেত্রে এটি খুবই উপকারী।

পাশাপাশি হাড়, দাঁত, মাড়ি এবং ত্বকের জন্য বেশ উপকারী এই ভিটামিন সি। ভিটামিন সি শরীরে ইমিউনিটি পাওয়ার বাড়াতে সাহায্য করে ফলে সর্দি-কাশির সঙ্গে লড়ায় করতে পারে সহজেই।

টমেটোয় থাকা লাইকোপিন নামের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, টমেটোয় থাকা লাইকোপেন প্রস্টেট, কলোরেকটাল ও পেটের ক্যানসার রোধে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

কাঁচা টমেটোয় আরও থাকে কিউমেরিক ও ক্লোরোজেনিক অ্যাসিড। যা কার্সিনোজের প্রভাব থেকে শরীরকে রক্ষা করে। ফলে ক্যানসার রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা হ্রাস পায়।

এমনকি যারা একান্তই ধূমপান ছাড়তে পারছেন না, তারা নিয়মিত কাঁচা টমেটো খেলে ধূমপানের আসক্তিও কমতে শুরু করবে।