কর ন্যায্যতার দাবিতে সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত

বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশনের উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ২১ জানুয়ারি ২০২২ বিকেল ৩ টায় কর ন্যয্যতার দাবিতে এক সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় সমগ্র এশিয়া ব্যপী কর ন্যয্যতা বিষয়ক ‘বিশ্ব সংগ্রাম সপ্তাহ’ পালনের অংশ হিসাবে।

বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশনের সভাপতি কমরেড বদরুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ হোসেন, বাংলাদেশ ভূমিহীন সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুবল সরকার, বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক জায়েদ ইকবাল খান,বাংলাদেশ জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শামীমা আরা, রেডিমেড গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সভাপতি লাভলী ইয়াসমিন, জাগো বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি বাহরানে সুলতান বাহার, মাদারল্যান্ড গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সভাপতি সালেহা ইসলাম শান্তনা, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আল আমিন, নারীনেত্রী রেহানা বেগম, আদিবাসী নেত্রী অমলী কিসকু, কৃষক নেতা মোঃ পলাশ হোসেন, জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ শাহআলম আকন, শ্রমিক নেতা মোঃ হানিফ আকন, নারী নেত্রী কাজী রেনু , নাসরীন আক্তার, হাসি আক্তার,যুব নেতা মোঃ ইউনুছ সিকদার, ছাত্র নেতা মাসুদ পারভেজ প্রমুখ।

সমাবেশে কমরেড বদরুল আলম বলেন, বাংলাদেশের কর ব্যবস্থাপনা অত্যন্ত পশ্চাৎপদ। কর ব্যবস্থাপনাকে জনস্বার্থে ঢেলে সাজানো দরকার। সেজন্য প্রগতিশীল একটি কর ব্যবস্থাপনা প্রণয়ন এখন সময়ের দাবি। গরিব মানুষকে কর মুক্তি দিয়ে ধনিদের উপর কর আরোপ করতে হবে। একটি শ্রেণী বিভক্ত সমাজে সর্বজনীন কর বিন্যাস অন্যায় ও জনস্বার্থবিরোধী যা আমাদের দেশে রয়েছে। তিনি আরও বলেন, যথাযথ কর ব্যবস্থাপনা না থাকায় বড় বড় দেশি—বিদেশি কোম্পানির মালিকেরা একদিকে যেমন কর ফাঁকি দিচ্ছে অন্যদিকে তেমনি দেশের বাহিরে দেশের সম্পদ পাচার করছে।

বক্তারা বলেন, মুসক বা ভ্যাট গরিব ও ধনি মানুষের উপর নির্বিচারে আরোপ ন্যয়ের পরিপন্থি। মুসক নামের এই পরোক্ষ কর গরিব মানুষের জীবন জীবীকার উপর প্রতি নিয়ত আঘাত হানছে। এতে গরিব আরও গরিব হচ্ছে ও ধনি আরও ধনি হচ্ছে। এই অবস্থার পরিবর্তন দরকার। বক্তারা পাচারকৃত প্রায় ১১ লক্ষ কোটি দেশে ফিরিয়ে এনে জনগণের উন্নয়ন কাজে ব্যয় করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

বক্তারা আগামী জুন মাসের জাতীয় বাজেটে ‘গরিবদের নয়, ধনীদের উপর কর আরোপ’ নীতির’ ভিত্তিতে বাজেট প্রণয়নের জন্য সরকারের নিকট দাবী জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি