কর্মস্থল চট্রগামে গিয়ে ১০ দিন ধরে নিখোঁজ কলেজ ছাত্র

একুশেরালো২৪ ডেস্ক: ঝিনাইদহ শহরের কাঞ্চনপুর দক্ষিন পাড়ার ভ্যানচালক শহিদুল ইসলামের একমাত্র ছেলে কালীগঞ্জ সরকারী মাহতাব উদ্দীন কলেজের সম্মান শ্রেণির ছাত্র সোহাগ মিয়া ১০ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে। তাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। একমাত্র সন্তানের খোঁজ না পেয়ে পিতা-মাতার আহাজারিতে বাতাস ভারি হয়ে উঠেছে। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, করোনায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় গরীব পিতা-মাতার মুখে হাসি ফোটাতে কাজের সন্ধানে সোহাগ বেরিয়ে পড়েন। যে কোনো মাধ্যমে চট্টগ্রামের মেসার্স আর এম আই কর্পোরেশনে কাজ পেয়ে যায়। যথারিতি এক মাস সেখানে কাজ করে বেতন পেয়ে ছুটি নিয়ে বাড়ি আসে। বাবা-মায়ের হাতে বেতনের টাকা তুলে দিলে তাদের অশ্রু আনন্দ চোখ বেয়ে পড়ে। ছুটি শেষে সোহাগ চলে যায় কর্মস্থল চট্রগামে। এরপর থেকেই সোহাগ নিখোঁজ।

সোহাগের পিতা শহিদুল ইসলাম জানান, প্রায় ১০ দিন ধরে সোহাগকে তিনি খুঁজে পাচ্ছেন না। যে ছেলে দৈনিক অন্তত দুইবার বাবা-মায়ের সাথে কথা বলতো সেই ছেলের ফোনটিও বন্ধ। এদিকে কর্মরত প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রামের মেসার্স আর এম আই কর্পোরেশনে ফোন করলে তারা দায় এড়িয়ে যাচ্ছে। পাড়া প্রতিবেশিরা জানান, খুবই গরীব ও মেধাবী ছাত্র সোহাগ ছিল সোহাগ। ২০১৬ সালে সে আলহেরা ইসলামী ইনস্টিটিউট (মাঃ বিঃ) ঝিনাইদহ থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসি এবং ২০১৮ সালে ঝিনাইদহ কলেজ থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এইচএসসি পাশ করে বর্তমান কালিগঞ্জ মাহাতাবউদ্দিন কলেজে সম্মান শ্রেণিতে অধ্যয়নরত। সোহাগের পরিবার তার সন্ধান ও অক্ষত উদ্ধারের দাবী জানিয়েছে দেশের আইনশৃংখলা বাহিনীর কাছে।