ইন্ডিপেন্ডেন্স কাপে চ্যাম্পিয়ন সেন্ট্রাল জোন

ক্রীড়া প্রতিবেদক : মূল কাজ করে দিয়েছেন বোলাররাই। বাকিটুকু শেষ করতে কষ্ট হলো না সেন্ট্রাল জোনের ব্যাটারদের। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ইন্ডিপেন্ডেন্স কাপের ফাইনালে বিসিবি সাউথ জোনকে ৬ উইকেট আর ৪৫ বল হাতে রেখে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন।

এর আগে বিসিবি সাউথ জোন অলআউট হয়ে গিয়েছিল ১৬৩ রানে। এই রান সহজেই পার করে বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের পর ইন্ডিপেন্ডেন্স কাপেও চ্যাম্পিয়ন হয়ে ঘরোয়া ডাবল জিতলো সেন্ট্রাল জোন।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে কুয়াশাভেজা কন্ডিশনে টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সেন্ট্রাল জোনের অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। বোলিংয়ে নেমে শুরুটা তেমন ভালো না হলেও ক্রমেই সাউথ জোনকে চেপে ধরে সেন্ট্রালের বোলাররা।

উদ্বোধনী জুটিতে ১১.৫ ওভারে ৫১ রান যোগ করে ফেলেছিলেন সাউথের দুই ওপেনার এনামুল হক বিজয় ও পিনাক ঘোষ। নাজমুল ইসলাম অপুর বলে এনামুল বিজয় লেগ বিফোরের ফাঁদে ধরা পড়লে ভাঙে উদ্বোধনী জুটি। বিজয় ৩৪ বলে করেন ২০ রান।

এরপর আর তেমন কোনো বড় জুটির দেখা মেলেনি সাউথের ইনিংসে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে তারা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৫ রান আসে পিনাকের ব্যাট থেকে। দলীয় ৬৪ রানের মাথায় সৌম্য সরকারের বলে মোহাম্মদ মিঠুনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি।

ফাইনালের আগে লিগ পর্বের ম্যাচে সেন্ট্রালের বিপক্ষে সাউথের জয়ে ম্যাচসেরা ছিলেন তৌহিদ হৃদয়। আজ তাকে রানের খাতাই খুলতে দেননি নাজমুল অপু। পরে নাহিদুল ইসলাম ৩১, অমিত হাসান ২৯ ও জাকির হাসান ১৪ রান করতে সক্ষম হন।

সেন্ট্রালের পক্ষে বল হাতে সমান দুইটি করে উইকেট নিয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, সৌম্য সরকার, হাসান মুরাদ, নাজমুল ইসলাম অপু ও মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী নিপুণ।