আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় মোট রপ্তানি আদেশ ২৪৩ কোটি টাকা : বিক্রি ১১৩ কোটি টাকা

আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় মোট রপ্তানি আদেশ ২৪৩ কোটি টাকা : বিক্রি ১১৩ কোটি টাকা

২২তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় মোট রপ্তানি আদেশ পাওয়া গেছে ২৪৩ কোটি ৪৪ লাখ টাকার। একই সঙ্গে মেলায় বিক্রি হয়েছে ১১৩ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে মেলা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত সমাপনী অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লা আল মামুন। এছাড়া অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘ব্যবসায়ীরাই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, আরও এগিয়ে নিয়ে যাবেন। এর সাথে কৃষকরা তাল মিলিয়ে যাচ্ছেন।’

আশরাফ বলেন, ‘উদ্ভাবনের দিক দিয়ে বাংলাদেশ অনেক বেশি এগিয়ে গেছে। বাণিজ্য মেলা সেই উদ্ভাবনী শক্তিকে উৎসাহ যোগাচ্ছে।’ ভবিষ্যতে এই মেলা আরও বড় পরিসরে হবে বলে তিনি জানান।

বাণিজ্য সচিব হেদায়েতুল্লা আল মামুন বলেন, ‘মাসব্যাপী মেলা সফল করার জন্য ব্যবসায়ীরা সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রেখেছেন। এক্ষেত্রে ইপিবিও প্রতি বছর বেশ পরিশ্রম করে।’ তিনি বলেন, ‘মেলা আয়োজনে আমরা সফল বলেই মানুষ যানজটে পেরিয়ে মেলায় আসে। তাই মেলাও প্রাণবন্ত হয়েছে।’

এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মাতলুব আহমেদ বলেন, ‘গণতান্ত্রিক পরিবেশে সবার সহযোগিতায় বিদায় হলো মেলা। এক সময় আমরা বাস দিয়ে স্টল বানালেও সেই গণ্ডি ছাড়িয়ে আজ বিশাল বিশাল প্যাভিলিয়ন স্টল হয়েছে। জাপান হাঙ্গেরি গেলে তারা আমাদের মিলেনিয়াম বলে সম্মানিত করে। জুতা ফার্নিচার এক সময় আমদানি করা হলেও এখন রপ্তানি করা হচ্ছে। ওয়ান প্রোডাক্ট্ ডিপেন্ডটেড কমার উদ্যোগ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। প্রায় ১৯৭৭ সাল থেকে ১৭ এর ব্যবধানে অনেক উপরে এসেছে ইপিবির সঙ্গে ব্যবসা চলে এসেছে ‘

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, ‘ব্যবসায়ীদের অনেক পরিবর্তন হয়েছে। বেশি করে আয় করে ভ্যাটও বেশি করে দেবেন। কারণ সরকার ব্যবসায়ীদের বিশ্বে অনেক সুযোগ করে দিচ্ছে, মালয়েশিয়া ভিসা এখন ফ্রি করে দিয়েছে।’

রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান বেগম মাফরুহা সুলতানা জানান, এবার বিক্রি অর্ডার পাওয়া গেছে ২৪৩ দশমিক ৪৪ কোটি টাকা, পণ্য বিক্রি হয়েছে ১১৩ দশমিক ৫৩ কোটি টাকা। তিনি বলেন, গতবারের চেয়ে এবার মেলায় ভালো বিক্রি হয়েছে। মেলায় কোনো রকম ঝামেলা হয়নি। সুষ্ঠুভাবে মেলা সম্পন্ন হয়েছে।