২৩৪ পৌরসভায় ভোট গ্রহণ শুরু

দেশের ২৩৪টি পৌরসভায় একযোগে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। এবারই প্রথম স্থানীয় কোনো নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রতীকে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রায় সাত বছর পর ভোট ময়দানে মুখোমুখি দেশের বড় দুই রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি।

বুধবার সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে, যা বিরতিহীনভাবে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। পৌরসভাগুলোর ৩ হাজার ৫৫৫টি ভোটকেন্দ্রে একযোগে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে। ৬৬ হাজার ৭৬৮ জন কর্মকর্তা ভোট গ্রহণ করছেন।

পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে মাঠে রয়েছে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, কোস্টগার্ড ও আনসারসহ লক্ষাধিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সঙ্গে রয়েছে নির্বাহী ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট।

এবারের নির্বাচনে ২৩৪টি পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মোট ২৩৪ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। বিএনপির ২২৩, জাতীয় পার্টির ৭৪, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) ২১, স্বতন্ত্র ২৮৫ ও অন্যান্য দলের ১০৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ ছাড়া সাতটি পৌরসভায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

ইসির সংশ্লিষ্ট শাখার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ২০জন ও সাধারণ কেন্দ্রে ১৯জন করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য নিয়োজিত রয়েছেন। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোর জন্য অতিরিক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে বিজিবি, র‌্যাব, এপিবিএন, কোস্টগার্ড ও পুলিশ সদস্যরা নিয়োজিত রয়েছেন।  এসব আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নেতৃত্বে ও অপরাধ দেখভালে মাঠে রয়েছেন সর্বমোট ১ হাজার ২০৪ জন নির্বার্হী ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট।

Leave a Reply