১৯ বছর বয়সেই বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ফুটবলার

ফুটবলের জগতে সবচেয়ে ধনী ফুটবলারের কথা আসলেই মাথায় আসে মেসি-রোনালদোর নাম। আসাটাই স্বাভাবিক। কারণ, ফুটবল ক্যারিয়ারে লম্বা পথ পাড়ি দিয়েছেন তারা। তবে, মেসি-রোনালদোকে ছাড়িয়ে বিশ্বের সেরা ধনী ফুটবলারের তকমাটি যখন নিজের করে নেন ১৯ বছর বয়সী এক ফুটবলার তখন সেটা অবাক করার মতোই। বিশ্ববাসীকে অবাক করে দেয়া এই ফুটবলার কে?

তিনি হলেন ফাইক বোলকিয়াহ। বয়স ১৯ বছর। ফুটবলার হিসাবে এখনও সেভাবে পরিচিতি পাননি তিনি। এখনও আসতে পারেননি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সীমানায়। খেলছেন লেস্টার সিটির অনূর্ধ্ব-২৩ একাডেমি দলে। এর আগে খেলেছেন আর্সেনাল এবং চেলসির বয়স ভিত্তিক দলে।

কিন্তু পারিবারিক সম্পদের তোপে যে তিনি এগিয়ে অনেকটা পথ। ফোর্বস-এর শেষ জরিপ অনুসারে রোনালদোই সবচেয়ে ধনী ফুটবলার। তার সম্পদের মূল্য ২৫ কোটি পাউন্ড। মেসি তার চেয়ে দুই কোটি পাউন্ড পিছিয়ে।

কিন্তু বোলকিয়াহর সাম্রাজ্য যে আরও বহুগুণ এগিয়ে। তার সম্পদর পরিমাণ দুই হাজার কোটি ডলার। হুম চমকে যাবার মত কিছুই নয়। ব্রুনেইয়ের সুলতান হাসনান বোলকিয়াহর ভাতিজা হন ফাইক বোলকিয়াহ।

ফাইকের বাবা জেফ্রি বোলকিয়াহ ব্রুনেই বিনিয়োগ এজেন্সির প্রধান হয়ে গত পনেরো বছরে ব্যয় করেছেন এক হাজার কোটি পাউন্ড। ব্রুনেই রাজ পরিবারের এই সদস্য অনেক বিলাসবহুল জীবন যাপন করেন। প্রতি মাসে গাড়ি, ঘড়ি আর সোনার কলম কিনতেই ফাইকের ব্যয় সাড়ে তিন কোটি পাউন্ড।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে, ফাইকের বাবার গাড়ি সংখ্যা প্রায় ২৩ হাজার। তাছাড়া তিনি নিজের ৫০তম জন্মদিনে আয়োজন করেছেন ব্যক্তিগত কনসার্ট। আর তার জন্য বানিয়েছেন বিশাল বড় স্টেডিয়াম এবং এনেছিলেন পপ তারকা মাইকেল জ্যাকসনকে। যার জন্য তার খরচ হয়েছিল প্রায় ১ কোটি ২৫ লাখ পাউন্ড।

এতো বড় রাজ পরিবারের সদস্য হয়েও ফুটবলের প্রতি ভালোবাসাই ফাইককে টেনেছেন সবুজ গালিচায়। তার ভাষ্য মতে, ছোট থেকেই মাঠে গিয়ে ফুটবল খেলতে ভালোবাসতেন। আর সেই সাথে ছিল বাবা-মায়ের সমর্থন। মেসি-রোনালদোর মতো তিনি ও শখের পূজারি। তাই তো অবসরে ছুটে যান নিজের পোষা বাঘের সাথে ফুটবলে মেতে উঠতে।