১১তলা থেকে লাফ দিয়ে সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সকর্মীর আত্মহত্যা

সারাদেশ ডেস্ক :

রাজধানী বনানীর নিজ অফিসের ১১তলার জানালা দিয়ে লাফ মেরে সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের আইটি বিভাগের প্রধান হুমায়ুন কবির (৫২) আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। কোম্পানিটির দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা বলছেন, হুমায়ুন কবির কীভাবে ১১তলা থেকে নিচে পড়েছেন তা তারা জানেন না।

সোমবার দুপুরে বনানীর বিটিআই টাওয়ারে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরে আজম মিয়া জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, দুপুরে বনানী এফআর টাওয়ারের বিপরীতে বিটিআই টাওয়ারের ১১ তলায় সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির আইটি প্রধান হিসেবে কর্মরত ছিল হুমায়ুন। অফিসে থাকা অবস্থায় হঠাৎ অফিসের জানালা দিয়ে নিচে লাফিয়ে পড়েন তিনি।

তিনি আরও বলেন, আমরা প্রাথমিক তদন্তে লাফ দেয়ার পেছনে কারও ইনফ্লুয়েন্স বা প্ররোচনা পাইনি। ধারণা করা হচ্ছে এটি আত্মহত্যা। এ বিষয়ে জানার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে।

মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে বলে জানান ওসি।

এ বিষয়ে সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) একেএম শরিফুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, হুমায়ুন কবির আমাদের কোম্পানির আইটি বিভাগের প্রধান ছিলেন। ঘটনার সময় তিনি রুমে একা ছিলেন। ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। কিন্তু কীভাবে এ ঘটনা ঘটেছে সে ব্যাপারে আমরা নিশ্চিত নই।