হাসপাতালে কেমন আছে থাই কিশোররা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : গুহা থেকে শ্বাসরুদ্ধকর উদ্ধার অভিযানের পর থাই কিশোর ফুটবলারদের প্রথমবারের মতো দেখা মিললো হাসপাতালের বিছানায়। হাসপাতাল থেকে এই প্রথম ১২জন কিশোরের ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, গুহা থেকে উদ্ধার পাওয়া কিশোর ফুটবলাররা হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কক্ষে পাশাপাশি বিছানায় বসে বা শুয়ে আছে। তাদের পরনে হাসপাতালের গাউন এবং মুখে মাস্ক।

কিশোর ফুটবলারদের একজন ক্যামেরা দেখে বিজয়সূচক ‘ভি’ চিহ্ন দেখিয়েছে। তবে গুহার ভেতরে দীর্ঘদিন থাকা এবং বিপদজনক উদ্ধার অভিযানের ধকল সামলাতে তাদের কিছুটা সময় প্রয়োজন। কর্তৃপক্ষ বলেছে, তাদের কিছুদিন হাসপাতালে থাকতে হবে।


এদিকে, এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, ভয়াবহ উদ্ধার অভিযানের সময় কিশোর ফুটবলার ১২জন এবং তাদের কোচকে এক ধরণের ওষুধ দেয়া হয়েছিল, যাতে তারা আতঙ্কিত না হয়।

উদ্ধার কাজে সরাসরি অংশ নেয়া একজন ডুবুরি জানিয়েছেন, অন্ধকার ও সংকীর্ণ জায়গা এবং পানির ভেতর ডুব দিয়ে বের করার সময় কিশোররা যাতে আতঙ্কিত না হয়, সেজন্য কড়া ডোজের ঘুমের ওষুধ দিয়ে তাদের গুহা থেকে বের করে আনার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছিল।
থাই নেভি সিল থেকেও গুহার ভেতরে কিশোর ফুটবলারদের উদ্ধার অভিযানের কিছু ছবি এবং ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। থাই নেভি সিল এর সাবেক চিয়েনান্ত পীরানারং এএফপিকে বলেছেন, ‘তাদের মধ্যে কেউ কেউ ঘুমিয়ে ছিলো। কেউ কেউ তাদের আঙ্গুলের ঝাঁকুনি দিয়েছিলো। কিন্তু তারা শ্বাস নিচ্ছিল। আমার কাজ ছিলো, তাদের বের করে আনা।’

এই কিশোরদের প্রত্যেকের জন্য দু’জন করে ডুবুরি ছিল। তাদের শুকনো অংশ দিয়ে পার করার জন্য স্ট্রেচার ব্যবহার করা হয়। সূত্র: বিবিসি

Inline
Inline