হাজার বছরের পুরানো গাছ কে ঘিরে এলাকাবাসির নানা কৌতুহল

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের সিংহনাথ পুরে গ্রামে বুড়োঠাকুর নামে বহু পুরানো একটি গাছ কে ঘিরে সনাতন ধর্মালম্বিরা সহ বিভিন্ন ধর্মের মানুষ জন মানত নিয়ে আসে এই বুড়োঠাকুর গাছের নিছে।
স্থানীয়দের সাথে আলাপ করে জানা যায়, তাদের বাপ দাদাদের কাছে গল্প শুনেছেন এই গাছের নিকটেই একটি পুকুর ছিল সেখান থেকে লোহার সিন্ধুক ভাসত, তখন এলাকার মানুষ যে কোন মন বাসনা নিয়ে তারা সিন্ধুকের কাছে ভোগ দিতেন তাদের সেই মনবাসনা পূর্ণ হত।
সরজমিনে গিয়ে সেই পুরানো গাছের বিভিন্ন ভগ্ন অংশ ও বিচিত্র ভঙ্গিতে গাছের বিভিন্ন অংশে দেখা যায়। সিংহনাথ গ্রামের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক সুধীন্দ্র কুমার তালুকদার বলেন, সিংহনাথপুর গ্রামে এই গাছ কে ঘিরে মানুষের নানা কৌতুহলের জন্য প্রতিদিন বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষ আসে এবং এই সিংহনাথপুর গ্রামে চৈত্র মাসের ১ম রবিবার মেলা হয়।

এ যেন এক মানব প্রেমে পরিনত হয় বুড়োঠাকুর নামে খ্যাত এই রহস্যময় বৃক্ষ । প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক বেরতী রঞ্জন দাস রায় বলেন, এই পুরানো গাছের আশীর্বাদে এলাকায় প্রতিনিয়ত বিভিন্ন মানত নিয়ে দর্শনার্থীরা আসেন। সেই পুরানো পুকুরের পানি দিয়ে তলায় বসে পানি পান সহ বিভিন্ন ভোগ দেয় দর্শনার্থীরা। হাজার বছরের পুরোনু এই গাছ কে ঘিরে রহস্য থেকেই গেল।
জগদল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শিবলীবেগ বলেন, বাপ-দাদাদের কাছে গাছের গল্প শুনেছি তখনও গাছের বয়স তারা অনুমানে বলতেন অনেক পুরানো গাছ, তিনি আরো বলেন, সংশ্লিষ্ট প্রশাসন এই রহস্যময় গাছের রক্ষনা- বেক্ষনে এগিয়ে আসা উচিৎ।
জেলা বন সংরক্ষন কর্মকর্তা প্রদীপ কুমার দত্ত বলেন, এমন হাজার বছরের পুরানো গাছ আছে বলে আমি জানতাম না তবে আমি এলাকায় গিয়ে গাছের খোজখবর নিয়ে এত পুরানো গাছের সংরক্ষনের ব্যবস্থা নিতে আমাদের উর্দ্ধতন কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নিব।