স্মার্টফোন ব্যবহারে পরিবর্তন আনবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা

সম্প্রতি গ্যাজেটস নাউ প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, স্মার্টফোন ব্যবহারে পরিবর্তন আনবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা এআই নিয়ে গবেষণা চলছে অনেক দিন ধরে। কিন্তু কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির সফলতা তখনই নজরে আসবে, যখন এর ব্যবহার হাতে হাতে দেখা যাবে। অর্থাৎ মুঠোফোনে এআইয়ের ব্যবহার বাড়লে এর সফলতা চোখে পড়বে। এ ক্ষেত্রে প্রযুক্তি গবেষকেরা ২০১৮ সালকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির মোড় ঘোরার বছর হিসেবে দেখছেন।

এই প্রতিবেদনে থাকছে এআই প্রযুক্তির ৫টি বিষয়ের কথা, যেগুলো মুঠোফোনের ব্যবহারের পরিবর্তন আনবে। ক্যামেরায় বস্তু শনাক্তকরণের উন্নত পদ্ধতি মুঠোফোনের ক্যামেরায় বস্তু শনাক্তকরণ প্রযুক্তি বেশ পুরনো। কিন্তু এআই প্রযুক্তি এই পদ্ধতিকে আরও উন্নত করবে। ফলে ক্যামেরা ফ্রেমে প্রাকৃতিক দৃশ্য, খাবার নাকি আতশবাজি থাকছে, তা তাৎক্ষণিকভাবে শনাক্ত হবে এবং সে অনুযায়ী ক্যামেরা সেটিংস পরিবর্তন হবে।

তা ছাড়া এআই মুখমণ্ডল শনাক্তকরণের মাধ্যমে পোর্ট্রেট ছবিকে আরও উন্নত করতে পারবে। তাত্ক্ষণিকভাবে ভাষান্তর এক ভাষা থেকে অন্য ভাষায় অনুবাদ করবে এমন অনেক অ্যাপ রয়েছে। যেগুলোতে একটি ভাষায় লেখা পৃষ্ঠার ছবি তুললে তা অনুবাদ করে দেবে। তবে সে ক্ষেত্রে ছবি আপলোড, বিশ্লেষণ এবং অনুবাদ করতে ইন্টারনেট সংযোগের প্রয়োজন হয়। কিন্তু এআই প্রযুক্তি ব্যবহারে একসঙ্গে একাধিক ভাষা অনুবাদ করা যাবে, তাও আবার ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়াই। সূত্র: গ্যাজেটস নাউ