স্বল্প খরচেই আর্সেনিকমুক্ত হবে পানি

রাবি প্রতিবেদক : কম খরচে পানিকে আর্সেনিক দূষণমুক্ত করার প্রযুক্তি উদ্ভাবন করতে সক্ষম হয়েছেন গবেষকরা।

জাপানের তৈয়মা বিশ্ববিদ্যলয়ের ওয়াটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. তমুনুরি কাওয়াকামির সঙ্গে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মনজুর হোসেনের গবেষণায় উদ্ভাবিত ওই প্রযুক্তির নাম ‘রিমোভাল অব আর্সেনিক থ্রু ইলেক্ট্রনিক সিস্টেম’।

এরই মধ্যে প্রযুক্তিটি আর্সেনিক আক্রান্ত এলাকায় স্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছেন তারা। অধ্যাপক ড. মনজুর হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন।

উদ্ভাবিত এই প্রযুক্তির বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে তিনি বলেন, স্থানীয় উপকরণ ব্যবহারের মাধ্যমে উদ্ভাবিত এই প্রযুক্তিটি পরিবারের যে কেউ পরিচালনা করতে পারবেন। বিদ্যুৎ বা ব্যাটারি যে কোনটি দিয়ে এটি চালানো যাবে। টেকশই এ প্রযুক্তিটি স্থানীয় ইলেক্ট্রেশিয়ানরাও তৈরি করতে পারবেন। একসঙ্গে ২০ থেকে ৩০ লিটার পানি আর্সেনিক মুক্ত করা যায় এমন ব্যবস্থা করতে মাত্র আট থেকে দশ হাজার টাকায় এটি তৈরি হয়ে যাবে।

তিনি আরও বলেন, তাদের উদ্ভাবিত নতুন এই প্রযুক্তিটি পরিবেশ বা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক কোনো বর্জ্য তৈরি করবে না। এ বছরের জুলাই-আগস্টে চাপাইনবাবগঞ্জের মহারাজপুর গ্রামে প্রযুক্তিটির ব্যবহারে একটি পাইলট প্রকল্প শুরু হবে।

এর আগে ২০১৪ সালের দিকে রাবির ভূতত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের পিএইচডি শিক্ষার্থী ফিরোজুর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে পানিকে আর্সেনিক মুক্ত করার জন্য ড. কাওয়াকামির সঙ্গে গবেষণা শুরু করেন রাবি অধ্যাপক ড. মনজুর হোসেন।

দীর্ঘ ৫ বছরের চেষ্টায় চলতি বছরের মার্চে এ বিষয়ে সফল হন তারা।