সুনামগঞ্জে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে নিহত ১, আহত অন্তত ৩৫

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা : সুনামগঞ্জ সিলেট মহাসড়কের ডাবর এলাকায় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে একজন নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছে অন্তত ৩৫ জন। ঘটনাস্থলে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে। নিহতের নাম আবু বকর তিনি জেলার দিরাই উপজেলার জগদল গ্রামের মৃত গোলাম মোস্তফার ছেলে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, লিমন পরিবহন ছাদের উপরে নানা প্রজাতির মাল বোঝাই করে অল্প সংখ্যক যাত্রী নিয়ে ঢাকা থেকে সুনামগঞ্জ আসছিল। বৃহষ্পতিবার সকাল পৗেনে ৭টায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জের ডাবর সেতুর পূর্ব পাশে এসে গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নিচের হাওরে পড়ে উল্টে যায়। এসময় ঘটনাস্থলেই দিরাই উপজেলার জগদল গ্রামের আবু বকর(৫০) নামের এক যাত্রী মারা যান। আহত হন অন্তত ৩৫জন। দুর্ঘটনার পর গাড়িটির ইঞ্জিন যন্ত্র জানালা খুলে পড়ে গেছে। খবর পেয়ে ট্রাফিক পুলিশ ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। স্থানীয়দের কৈতক ও সুনামগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
লিমন পরিবহনের যাত্রী দুলাল বলেন, লক্কর ঝক্কর বাসটি ছিল খুবই দুর্বল। ছাদে ছিল প্রচুর মাল। যে কারণে দুর্ঘটনার পরই যন্ত্রপাতি খুলে গেছে।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সকাল পৗেনে ৭টার দিকে ঢাকা থেকে ছুটে আসা লিমন পরিবহন বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে এক যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। তবে বাসটিতে অতিরিক্ত মালামাল থাকায় এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।
অপরদিকে বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় মোহনপুর থেকে সুনামগঞ্জ আসার পথে গোবিনাদপুরের কাছে একটি বেপরোয়া ট্রাক মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিলে রাস্তা থেকে ছিটকে পরে গুরুত্বর আহত হন মোহনপুর গ্রামের মানিক মিয়া(৩০) নামের এক মোটরসাইকেল চালক। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার সিলেট ওসমানীতে রেফার্ড করেন। যাবার পথে মারা যান মানিক মিয়া।
সদর থানার ওসি মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।