সুনামগঞ্জে বন্যাকবলিত দেড় শতাধিক পরিবার পেল শুকনো খাবার

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলায় সিলেট অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মো. তাহমিদুল ইসলামের বিশেষ উদ্যোগে বন্যা কবলিত দেড় শতাধিক পরিবারের মধ্যে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

রবিবার (১৪ জুলাই) দিনব্যাপী উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ভীমখালি ইউনিয়নে বিভিন্ন গ্রামে বন্যার্ত পরিবারগুলোর মধ্যে চাল, চিড়া, ডাল, গুড়, সয়াবিন তৈল, নুডুলস, মুড়ি, চিনি ইত্যাদি এসব শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়।

জানা যায়, টানা বর্ষণে ও পাহাড়ি ঢলে বন্যা কবলিত এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম’র সহধর্মীনি, সহকারি কমিশনার মো. আল আমিন সরকার, জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াংকা পাল, ভীমখালি ইউপি চেয়ারম্যান মো. দুলাল মিয়া, উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়ের অফিস সহকারি মো. ফারুক আহমদসহ ইউপি সদস্যবৃন্দ।

অপরদিকে উপজেলার হাওরাঞ্চল বেহেলী ইউনিয়নে টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে বন্যা কবলিত ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে দূর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের অধীনে ত্রাণ বিতরণ করেন, বেহেলী ইউপি চেয়ারম্যান অসীম চন্দ্র তালুকদার।

বন্যা কবলিত ক্ষতিগ্রস্থদের স্বাস্থ্য সেবার পাশাপাশি চাউল, মুড়ি, চিড়া, গুড়, মোমবাতিসহ ম্যাচ বিতরণ করা হয়।

বেহেলী ইউপি চেয়ারম্যান অসিম তালুকদার বলেন, তিন দিন ব্যাপী ৬শত পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার ও চাল বিতরণ করা হয়েছে। পানিবন্ধী আরও ৮শত পরিবার রয়েছে। ত্রাণ ও দূর্যোগ মন্ত্রনালয় ও স্থানীয় সংসদ সদস্যের সুদৃষ্টি কামনা করছি। পাশাপাশি জামালগঞ্জ উপজেলাকে হাওর অঞ্চল ঘোষণা করার জন্য মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর বরাবর অনুরোধ জানাচ্ছি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জামালগঞ্জ উপজেলা দরিদ্র বিমোচন কর্মকর্তা শিবেন্দ্র চন্দ্র পাল, ইউপি সচিব মো. হান্নান মিয়া, ইউপি সদস্য খোকন মিয়া, ইউপি সদস্য বিউটি রানী পাল প্রমুখ।