সিলেটের এমসি কলেজে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট

সিলেট নগরীর টিলাগড়ে ছাত্রলীগ কর্মী তানিম খান হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে এমসি ও সরকারি কলেজে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট চলছে। গত রাতে রঞ্জিত সমর্থিতরা এ ধর্মঘট আহ্বান করে। এমসি ও সরকারি কলেজে সোমবার সকাল থেকে কোনো ক্লাস হয়নি। এদিকে স্নাতক ১ম বর্ষের আজকের পরীক্ষা স্থগিত করে ক্যাম্পাসে নোটিশ টানিয়েছে এমসি কলেজ কর্তৃপক্ষ।

আজ রবিবার রাত সাড়ে ৯ টায় টিলাগড় পয়েন্টে ছুরিকাঘাত হন সরকারি কলেজের ছাত্রলীগ কর্মী তানিম খান। তখন তাকে দ্রুত সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তানিম ছাত্রলীগের রঞ্জিত সমর্থিত। এ ঘটনার জন্য প্রতিপক্ষ আজাদ সমর্থিতদের দায়ী করা হয়েছে।

নিহত তানিম খান সিলেট সরকারি কলেজের বিএ পাস কোর্সের ছাত্র। তিনি সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার বুরুঙ্গা ইউনিয়নের নিজ বুরুঙ্গা গ্রামের ইসরাইল খানের ছেলে। শহরতলীর ইসলামপুর এলাকায় একটি মেসে থাকত বলে তার সহপাঠিরা জানিয়েছেন।

সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরাণ থানার ওসি আখতার হোসেন জানান, এঘটনার পর উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে। টিলাগড় এলাকায় অতিরিক্ত সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ।

এদিকে জেলা ছাত্রলীগ নেতা সাংবাদিকদের জানান, ছাত্রলীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে গত বৃহস্পতিবার ক্যাম্পাসের বাহিরে থাকা আজাদ সমর্থিত নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশের চেষ্টা করে। ওইদিন রঞ্জিত অনুসারীদের ধাওয়ায় তারা ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারেনি। এর জেরেই আজ ছাত্রলীগ কর্মী তানিমকে একা পেয়ে হামলা চালিয়ে হত্যা করা হয়।