‘সিলেটি’ ঘূর্ণিতে লণ্ডভণ্ড চিটাগং

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ৩৭তম ম্যাচে সিলেট সিক্সার্স স্পিনারদের ঘূর্ণিতে লণ্ডভণ্ড চিটাগং ভাইকিংস। মিরপুরে আগে ব্যাট করে ১২ ওভারে ৬৯ রানেই অলআউট হয়ে যায় চিটাগং। মূলত বন্দর নগরীর দলটিকে ধসিয়ে দেন সিলেটের তিন স্পিনার-নাসির হোসেন, শরিফুল্লাহ আর নাবিল সামাদ। নাসির ৫, শরিফুল্লাহ ২ এবং নাবিদ তুলে নেন ৩ উইকেট।

এক ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়ে নয়া রেকর্ড গড়লেন সিলেট দলনেতা নাসির হোসেন। বিপিএলের ইতিহাসে নবম সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড স্পর্শ করছেন তিনি। পাশাপাশি টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের সেরা বোলিং অর্জনও লুফে নিলেন নাসির। টি-টোয়েন্টিতে নাসিরের বেস্ট বোলিং ফিগার ২৬ রান খরচায় ২ উইকেট। বিপিএলের পাঁচ আসরে অদ্যাবধি এক ইনিংসে ৫ উইকেট নেয়ার কীর্তি আছে মোট ১১ জনের। যার মধ্যে তাসকিনের সঙ্গে সম্মিলিতভাবে নয়ে আছেন নাসির।

এদিকে নাসিরের দিনে লজ্জার রেকর্ডে নাম লেখাল চিটাগং। বিপিএলে সর্বনিম্ন রেকর্ডের ঘরে ঢুকল রনকি-তাসকিনরা। এখন পর্যন্ত বিপিএলের সর্বনিম্ন সংগ্রহ ৪৪। ২০১৬ বিপিএলে রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে এ সংগ্রহ করেছিল খুলনা। এই ম্যাচের পর সে সারিতে খুঁজে পাওয়া যাবে চিটাগংকে। ৬৭ রান করে সর্বনিম্ন সংগ্রহের চতুর্থ ঘরটা নিজেদের দখলে নিল চিটাগং।

মিরপুরে আজ সিলেট বোলারদের তোপে ভালো করতে পারেনি চিটাগংয়ের কোনো ব্যাটসম্যানই। লুইস রিসে, স্টিয়ান ভ্যান জেল ও ইরফান সুকুর ছাড়া কেউই দুই অঙ্কের ঘরে নাম উঠাতে পারেননি। লুইস রিসে, স্টিয়ান ভ্যান জেল ও ইরফান সুকুর যথাক্রমে করেন ১২, ১১, ১৫ রান।