সাংবাদিকের মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে হুমকি

শরীয়তপুর সংবাদদাতা  : শরীয়তপুর সদর উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নে সড়কের দু’পাশে গাছকাটার সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে বুধবার সকালে কর্মরত তিন সাংবাদিককে গুলি করে হত্যার হুমকি দেন এক সন্ত্রাসী।

এ বিষয়ে দৈনিক জনকণ্ঠের শরীয়তপুর প্রতিনিধি আবুল বাশার পালং মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। পরে বিকেলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলা থেকে ওই হুমকিদাতাকে অস্ত্রসহ আটক করেছে।
পালং মডেল থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সকালে শরীয়তপুর সদর উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের কাজীকান্দি এলাকায় রাস্তার দু’পাশের রেইন্ট্রি, কড়াই, মেহগনি ও চাম্বুলসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কে বা কারা কেটে নিয়ে যাচ্ছে বলে সংবাদ পেয়ে দৈনিক জনকণ্ঠের শরীয়তপুর প্রতিনিধি আবুল বাশার, স্থানীয় দৈনিক হুংকার প্রত্রিকার যুগ্ম বার্তা সম্পাদক খোরশেদ আলম বাবুল ও দৈনিক জনতার জেলা প্রতিনিধি মেহেদী হাসান ঘটনাস্থালে যান। সেখানে উপস্থিত হলে লোকজন জানান, স্থানীয় বাসিন্দা এনামুল হক সরদার অনুমতি ছাড়া সরকারি ৭১টি গাছ কেটে প্রায় ২ লাখ ১০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দিয়েছে।

এ সময় সাংবাদিকরা এনামুল হক সরদারের কাছে গাছ কাটার বিষয়ে জানতে চাইলে এনামুল হক সরদার তাদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। তিনি সাংবাদিকদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এক পর্যায়ে এনামুল হক সরদার তার ঘর থেকে পিস্তল এনে জনকণ্ঠের শরীয়তপুর প্রতিনিধি আবুল বাশারের মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করতে উদ্যত হন।

পরে বুধবার দুপুরে সাংবাদিক আবুল বাশার এ বিষয়ে পালং মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ করলে বিকেলে পুলিশ ভূমি অফিসের কাছ থেকে এনামুল হক সরদারকে অস্ত্রসহ আটক করে।

এদিকে রাস্তার দু’পাশের সরকারি গাছ কাটার সংবাদ পেয়ে শরীয়তপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জিয়াউর রহমানের নির্দেশে সহকারী কমিশনার (ভূমি) জিনিয়া জিন্নাত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং বেআইনীভাবে সরকারি গাছ কাটার সত্যতা পান।

এ বিষয়ে বিনোদপুর ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মো. লিয়াকত আলী বাদী হয়ে এনামুল হক সরদারকে আসামি করে পালং মডেল থানায় একটি মামলা করেছেন।

পালং মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, এনামুল হককে আটক করা হয়েছে। তার কাছে লাইসেন্স করা পিস্তল পাওয়া গেছে। পিস্তলের লাইসেন্স বাতিলের প্রাথমিক পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। অপরদিকে সরকারি গাছ কাটায় তার বিরুদ্ধে একটি নিয়মিত মামলা করা হয়েছে।

অপরদিকে পিস্তল উঠিয়ে সাংবাদিকদের হুমকি দেয়ার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে শরীয়তপুর প্রেসক্লাব, শরীয়তপুর ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসসিয়েশন ও বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) শরীয়তপুর জেলা শাখা। সন্ত্রাসী এনামুল হক সরদারের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছে সাংবাদিক সংগঠনের নেতারা।