সংরক্ষিত আসনে এমপি হতে চান সিরাজগঞ্জের ১২ নারী

সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা : জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত সিরাজগঞ্জ-পাবনা আসনে মনোনয়ন পেতে তৎপরতা শুরু করেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে ইতোমধ্যে সম্ভাব্য ১২ নারী নেত্রী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারীদের মধ্যে নির্বাচিত জেলা পরিষদ সদস্য, অধ্যাপক, আইনজীবী ও দুই সাবেক সংসদ সদস্যদের মেয়েও রয়েছেন। প্রার্থীরা সংরক্ষিত আসনের এমপি হওয়ার জন্য নিজেদের যোগ্যতা আর দলের জন্য ত্যাগ ও ভূমিকার কথা তুলে ধরছেন কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে।

সিরাজগঞ্জ-পাবনা জুড়ে এখন একটাই আলোচ্য বিষয় সংরক্ষিত আসনে কে হচ্ছেন নারী এমপি। এমনকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও নেতাকর্মীরা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে নিয়ে নানা মতামতও প্রকাশ করে চলেছেন।

নির্বাচনের পর থেকেই সংরক্ষিত আসনে মনোনয়নের জন্য নানা জায়গায় ধর্ণা দিচ্ছেন নারী নেত্রীরা। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন, আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি ও বিভিন্ন নেতাদের অফিস ও বাসায় নারীদের ভিড় চোখে পড়ার মতো। সবার একই কথা, ‘ভাই একটু খেয়াল রেখেন।’

সম্ভব্য প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও ঢাকার সরকারি বদরুন নেসা মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মেরিনা জাহান কবিতা, সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক সাংসদ ও সিরাজগঞ্জ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সেলিনা বেগম স্বপ্না, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক হাসনা হেনা, মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জান্নাত আরা তালুকদার হেনরী, জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত সদস্য অ্যাডভোকেট কাজী সেলিনা পারভীন পান্না, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার সহ-সভাপতি ও সদ্য বিদায়ী সাংসদ আমজাদ হোসেন মিলনের মেয়ে হোসনে আরা পারভীন লাভলী, সাবেক সংসদ সদস্য প্রয়াত আব্দুল লতিফ মির্জার মেয়ে সেলিনা মির্জা মুক্তি, কেন্দ্রীয় যুব মহিলা লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জেদ্দা পারভীন রিমী, সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক পৌর চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম তালুকদারের মেয়ে কেন্দ্রীয় যুব মহিলা লীগের সদস্য সোহেলি আফসানা ইকো, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মরহুম আবু মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়ার মেয়ে ও কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য ইলোরা কিবরিয়া, জেলা আওয়ামী মহিলা লীগের সহ-সভাপতি ও জাতীয় মহিলা সংস্থা সিরাজগঞ্জ শাখার চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শামিমা ইয়াসমিন রিমা ও বিএনপি-জামায়াতের পৈশাচিকতার শিকার উল্লাপাড়ার পূর্ণিমা রানী শীল।

প্রসঙ্গত ৫ জানুয়ারি ২০১৪ সালে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর ১৯ মার্চ সংসদ সদস্যদের ভোটে ৫০ জন মহিলা সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। প্রতিটি ফরমের জন্য মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ হাজার টাকা। এবারের একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী আসন অনুযায়ী ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ৪৩, জাতীয় পার্টি ৩, ঐক্যফ্রন্ট ২ এবং অন্যান্যরা ২টি মহিলা আসন পাবে।