শ্রীপুরে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু : টয়লেট থেকে লাশ উদ্ধার

শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনিধি: শ্রীপুরে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু টয়লেট থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ২৩ জুলাই রোববার সকালে উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের বাঁশবাড়ি গ্রামের এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ । নিহত গৃহবধূ আমেনা টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার মিরিকপুর গ্রামের মৃত ছলিম উদ্দিনের মেয়ে ও শ্রীপুরে বাঁশবাড়ী গ্রামের সোহাগ মিয়ার স্ত্রীর। পারিবারিক কলহের জেরে আমেনা ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে বলে ধারনা করছে পুলিশ।
নিহতের বড়বোন সালেহা খাতুনের অভিযোগ, ‘আমেনার স্বামী সোহাগ তার বড় মেয়ের শাশুড়ি জরিনার সঙ্গে প্রায় দুই বছর ধরে পরকিয়া প্রেম করে আসছে। বিষয়টি টের পেয়ে আমেনা সোহাগকে প্রায়ই বাধা দিতেন। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে মধ্য ঝগড়া লেগেই থাকতো। শনিবার রাতে আবারও পরকিয়া প্রেম নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরদিন সকালে গিয়ে দেখে, সোহাগ আমেনার লাশ(৩৫) নিয়ে বসে আছে। নিহতের স্বামী সোহাগ জানায়, আমেনা সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ওয়াশরুমে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।
এসআই জাহাঙ্গীর আলম জানান, আমেনাকে হত্যা করা হয়েছে নাকি তিনি আত্মহত্যা করেছেন, তা ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর বলা যাবে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় শ্রীপুর থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।