শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড বাড়াতে হবে : নাহিদ

রাজশাহী, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ : খেলাধুলা, শরীরচর্চা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড শিক্ষার্থীদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড বাড়াতে হবে।

আজ শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ রাজশাহীতে সরকারি শারীরিক শিক্ষা কলেজ মাঠে ’৪৭তম গ্রীষ্মকালীন জাতীয় স্কুল, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

বাংলাদেশ জাতীয় স্কুল, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা ক্রীড়া সমিতির আয়োজনে অনুষ্ঠানে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বক্তৃতা করেন।

‘শিক্ষার্থীদের পরিপূর্ণ মানুষ হয়ে উঠতে পড়াশুনার পাশাপাশি খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহন করতে হবে এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন,ক্রীড়ানুশীলন এবং সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড নেতৃত্বের গুনাবলী বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। মাদক ও জঙ্গিবাদসহ নানা নেতিবাচক কর্মকান্ড থেকে ছেলেমেয়েদের দূরে রাখতে সহায়তা করে।

নাহিদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ, বিদ্যুৎসহ সকল সেক্টরে আমুল পরিবর্তন হয়েছে। এ উন্নয়নকে আমাদের ধরে রাখতে হবে। ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে ক্রীড়ানুশীলনেরও গুরুত্ব রয়েছে। ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও খেলাধুলা দেশের সার্বিক উন্নয়ন ও সুনাম বৃদ্ধিতে তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

সভাপতিত্ব করেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের রুটিন দায়িত্বে নিয়োজিত মহাপরিচালক অধ্যাপক এম শামসুল হুদা।

জাতীয় পর্যায়ে চারটি ইভেন্টে মোট ৫২৮জন শিক্ষার্থী এ প্রতিযোগিতার চুড়ান্ত পর্বে অংশগ্রহণ করছে। ৪ অক্টোবর পর্যন্ত চূড়ান্ত পর্বের খেলা চলবে।

Inline
Inline