শিক্ষার উন্নয়নে বাংলাদেশ রোল মডেল : শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, শিক্ষার মান কমে নাই। অনেক উন্নতি হয়েছে। ছেলে-মেয়েদের মান অনেক উন্নত হয়েছে। ইউনেস্কোসহ অনেক আন্তর্জাতিক সংস্থা বলছে, উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে শিক্ষার উন্নয়নে বাংলাদেশ রোল মডেল।
গত শনিবার ঢাকা কলেজ অডিটরিয়ামে কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রদের ওরিয়েন্টেশন ও নবীনবরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।
গত শনিবার দেশে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে ক্লাস শুরু উপলক্ষে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে শিক্ষামন্ত্রী ঢাকা কলেজে একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরুর উদ্বোধন করেন।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, নতুন প্রজন্মকে জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। জাতির প্রত্যাশা পূরণে তাদেরকে অগ্রসৈনিকের ভূমিকা পালন করতে হবে।
ঢাকা কলেজকে দেশের সবচেয়ে প্রাচীন, ঐতিহ্যবাহী ও অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, এ প্রতিষ্ঠানের কাছে জাতির প্রত্যাশা অনেক। আজকের নবীন ছাত্রদের নিজ নিজ ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত হয়ে জাতির সেই প্রত্যাশা পূরণ করতে হবে। নিজেদেরকে দেশপ্রেমে উজ্জীবিত দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।
শিক্ষকদের শিক্ষা দান পদ্ধতি উন্নত করার ওপর জোর দিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এজন্য শিক্ষকদের চর্চা আরো বাড়াতে হবে। ভালোভাবে প্রস্তুতি নিয়ে, পড়াশুনা করে এসে ক্লাস নিতে হবে। আমাদের নতুন প্রজন্ম বিশ্বমানের মেধার অধিকারী। তাদের বিকাশের ব্যবস্থা করতে হবে। গত কয়েক বছর ধরে বিজ্ঞানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ঢাকা কলেজে এবার ১০০০ এর স্থলে ১৩০০ ছাত্র ভর্তি করা হয়েছে। অতিরিক্ত ৩০০ ছাত্র বিজ্ঞান শাখায় নেওয়া হয়েছে।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমাদের ছেলে-মেয়েদের জঙ্গিবাদের কুমন্ত্রনা থেকে রক্ষা করতে হবে। জঙ্গিরা ইসলামের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে আমাদের কোমলমতি ছেলে-মেয়েদের বিপথগামী করছে। এরা জাতিকে সর্বনাশের পথে চালিত করার চেষ্টা করছে। এদের ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।
ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. মোয়াজ্জেম হোসেন মোল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. আলমগীর, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. মোল্লা জালাল উদ্দিন, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. মাহাবুবুর রহমান, ঢাকা কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক নেহাল আহমেদ এবং অধ্যাপক সৈয়দা হাবিবা।
পরে শিক্ষা মন্ত্রী ঢাকার মতিঝিলে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) মিলনায়তনে একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির তিনটি বই-সাহিত্য পাঠ, সহপাঠ ও ইংলিশ ফর টুডে শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী। এ বইগুলো এনসিটিবি মুদ্রণ ও প্রকাশ করেছে। সাশ্রয়ী মূল্যে শিক্ষাথীরা এ বইগুলো কিনতে পারবে। সাহিত্য পাঠ বইটির দাম ১১৩ টাকা, সহপাঠ বইটির মূল্য ৫৫ টাকা এবং ইংলিশ ফর টুডে বইটির দাম ৮১ টাকা রাখা হয়েছে।