‘শিক্ষার্থীরা প্রযুক্তিতে দক্ষতার প্রমাণ রাখতে পারছে না’

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে আইসিটিতে বাংলাদেশ একদম তলানিতে অবস্থান করছে। কারণ আমরা শুধু ফেসবুক, ভাইবার আর ইমো চালাতে পারি। প্রযুক্তিতে আমাদের শিক্ষার্থীরা দক্ষতার প্রমাণ রাখতে পারছে না। এর দায়ভার আমাদের। স্বপ্ন বঙ্গবন্ধুর বাস্তবায়নে তথ্য প্রযুক্তির’এই প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আইসিটি সোসাইটি আয়োজিত‘দ্বিতীয় প্রযুক্তি সমাবেশে’বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান এসব কথা বলেন।বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সুশান্ত কুমার সাহা, উপাচার্য অধ্যাপক ড.ফারজানা ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মনজুরুল হক, সিএসই বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. ইমদাদুল ইসলাম, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. শাহেদুর রশিদ প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে তথ্য ও প্রযুক্তিবিদ মোস্তফা জব্বারকে আন মিলনায়তনের সেমিনার কক্ষে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, ‘জ্বালানি ও সড়ক যোগাযোগের ক্ষেত্রে তথ্য প্রযুক্তি বেশ সাফল্য এনেছে। তবে এসব সেক্টরকে এগিয়ে নিয়ে যেতে আমাদের বিদ্যুতের সিস্টেম লস, ও চুরি কমাতে হবে। তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে বিদ্যুৎ সমস্যা বড় একটি বাধা। তথ্য ও প্রযুক্তিবিদ ও বিজয় কীবোর্ডের প্রতিষ্ঠাতা মোস্তফা জব্বার বলেন, ‘বর্তমানে আমাদের যে শিক্ষা ব্যবস্থা চালু আছে তা যদি আগামী দশ বছর চালু থাকে তাহলে আর দক্ষ মানবশক্তি তৈরি হবে না। আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থাকে একদম প্রাথমিক পর্যায় থেকে পরিবর্তন করতে হবে।’অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- তথ্য ও যোজীবন সম্মাননাসহ উপস্থিত অতিথিদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়।অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।