শাহবাগে শিক্ষার্থী-পুলিশ সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা, আসামি ১২০০

পরীক্ষার তারিখ ও সময়সূচি ঘোষণার দাবিতে শাহবাগে শিক্ষার্থীদের সমাবেশে পুলিশের লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট নিক্ষেপের ঘটনায় উল্টো পুলিশের পক্ষ থেকে আন্দোলকারীদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে শাহবাগ থানার এসআই মাজহারুল ইসলাম বাদী হয়ে দায়ের করা এ মামলায় অজ্ঞাত ১২০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলায় পুলিশের কর্তব্য কাজে বাধা প্রদান ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে।

শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মামলাটি তদন্ত করবেন এসআই দেবরাজ চক্রবর্তী।

অপরদিকে, জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইন্সটিটিউটে চিকিৎসাধীন আহত শিক্ষার্থী সিদ্দিকুর রহমানের অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। আজ শনিবার তার দুই চোখের অপারেশন হবে। সিদ্দিকুর তিতুমীর কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে সিদ্দিকুরের সাথে অবস্থান করা তার সহপাঠি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সিদ্দিকুরের দুটি চোখই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সে এখন কোন চোখেই দেখতে পারছে না।

এ ব্যাপারে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইন্সটিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. গোলাম মোস্তফা বলেন, আহত শিক্ষার্থীর দুই চোখের অপারেশনের পর নিশ্চিত হওয়া যাবে যে তার চোখের দৃষ্টিশক্তি ফিরবে কি ফিরবে না।

বৃহস্পতিবার সকালে শাহবাগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভূক্ত সরকারি সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করে। এ সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এসময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শিক্ষার্থীদের ওপর লাঠি-চার্জ করে ও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। এতে কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হন। আটক করা হয় ১৩ জন শিক্ষার্থীকে।