শাহজাদের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে আফগানিস্তানের সংগ্রহ ২৫২

ক্রীড়া ডেস্ক : দুর্দান্ত একটি ইনিংস খেললেন আফগান ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদ। এশিয়া কাপের ম্যাচে মঙ্গলবার ভারতের বিপক্ষে ১১৬ বলে ১২৪ রান করেছেন তিনি। ওয়ানডেতে এটি তার পঞ্চম সেঞ্চুরি। এছাড়া মোহাম্মদ নবীও নজরকাড়া ব্যাট করেছেন। ৫৬ বলে ৬৪ রান করেছেন তিনি। ওয়ানডেতে এটি তার ১২তম অর্ধশত।

এই দুই ব্যাটসম্যানের উপর ভর করেই মঙ্গলবার এশিয়া কাপের সুপার ফোরের ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৫২ রান সংগ্রহ করেছে আফগানিস্তান। সুতরাং জিততে হলে ভারতকে করতে হবে ২৫৩ রান।

এদিন দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় আফগানিস্তান। ব্যাটিংয়ে নেমে তারা শুরুটা করে দারুণ। ওপেনিং জুটিতে ৬৫ রানের পার্টনারশিপ গড়েন মোহাম্মদ শাহজাদ ও জাভেদ আহমদি। ইনিংসের ১৩তম ওভারে রবীন্দ্র জাদেজার বলে জাভেদ আহমদি স্ট্যাম্পিং হন।

এরপর পরপর উইকেট হারিয়ে কিছু চাপে পড়েন আফগানিস্তান। ইনিংসের ১৫তম ওভারে রবীন্দ্র জাদেজার বলে বোল্ড হন রহমত শাহ। কুলদীপ যাদবের করা ইনিংসের ১৬তম ওভারের দ্বিতীয় বলে হাশমতউল্লাহ শহীদি ও তৃতীয় বলে আসঘার আফগান সাজঘরে ফিরে যান।

তারপর ৫০ রানের পার্টনারশিপ গড়েন মোহাম্মদ শাহজাদ ও গুলবদিন নাইব। দলীয় ১৩২ রানে দীপক চাহারের বলে কেদার যাদবের হাতে ক্যাচ হন গুলবদিন নাইব। এরপর মোহাম্মদ শাহজাদ ও মোহাম্মদ নবী ৪৮ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। দলীয় ১৮০ রানে কেদার যাদবের বলে দিনেশ কার্তিকের হাতে ধরা পড়েন মোহাম্মদ শাহজাদ। দলীয় ২২৬ রানে রবীন্দ্র জাদেজার বলে এলবিডব্লিউ হন নাজিবউল্লাহ জাদরান। ৪৮তম ওভারে খলিল আহমেদের বলে কুলদীপ যাদবের হাতে ধরা পড়েন মোহাম্মদ নবী।

ভারত ইতোমধ্যে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে। আর আফগানিস্তানের বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। তাই দুই দলের জন্যই এটি নিয়মরক্ষার ম্যাচ। এই ম্যাচে বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়কে বিশ্রামে রেখেছে ভারত। রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, জ্যাসপ্রীত বুমরাহ, ভুবনেশ্বর কুমার, যুজবেন্দ্র চাহালকে এই ম্যাচে একাদশে নেই। রোহিত শর্মার পরিবর্তে আজ অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। ৬৬৯ দিন পর আবার টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন ধোনি। ভারতীয় পেসার দীপক চাহারের আজ ওয়ানডেতে অভিষেক ম্যাচ খেলতে নেমেছেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

আফগানিস্তান ইনিংস: ২৫২/৮ (৫০ ওভার)

(মোহাম্মদ শাহজাদ ১২৪, জাভেদ আহমদি ৫, রহমত শাহ ৩, হাশমতউল্লাহ শহীদি ০, আসঘার আফগান ০, গুলবদিন নাইব ১৫, মোহাম্মদ নবী ৬৪, নাজিবউল্লাহ জাদরান ২০, রশীদ খান ১২*, আফতাব আলম ২*; খলিল আহমেদ ১/৪৫, দীপক চাহার ১/৩৭, সিদ্ধার্থ কাউল ০/৫৮, রবীন্দ্র জাদেজা ৩/৪৬, কুলদীপ যাদব ২/৩৮, কেদার যাদব ১/২৭)।