শাবি ছাত্রীর সঙ্গে র‌্যাগিংয়ের নামে এসব কী!

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিংয়ের নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে একের পর এক হয়রানি করেছে শিক্ষার্থী নামধারী বখাটেরা। তৃতীয় দিনে হয়রানি সহ্য করতে না পেরে ওই ছাত্রী অজ্ঞান হয়ে যায়। এনিয়ে ক্যাম্পাসে ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। ক্যাম্পাসলাইভের অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে নানা তথ্য।

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের এক ছাত্রীকে বেশ কয়েকদিন ধরেই নানাভাবে যৌন হয়রানি করে আসছিল বেশ কয়েকজন ছাত্র। তারা ওই ছাত্রীকে শহীদ মিনারে ও বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে একাধিকবার যৌন হয়রানি করেছে বলে বিশ্বস্থ সূত্রে জানা গেছে।

সর্বশেষ বৃহস্পতিবার ওই ছাত্রীকে ক্যাফেটেরিয়ার ছাদে ডেকে নিয়ে যৌন হয়রানি করে ওই ছাত্ররা। একপর্যায়ে ওই ছাত্রী হয়রানি সহ্য করতে না পেরে অজ্ঞান হয়ে পড়েন।

এঘটনার প্রতিবাদ করায় সিনিয়র শিক্ষার্থীদের উপর হামলা করেছে জুনিয়র শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার বিকেলে গণিত বিভাগের নবাগত এক ছাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ায়ার ছাদে র‌্যাগিংয়ের শিকার হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ক্যাম্পাস সূত্র জনায়, র‌্যাগিংয়ের ঘটনায় গণিত বিভাগের প্রথম বর্ষ দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী নজরুল ইসলাম রাকিব, মাহমুদ, মোশারফ এবং কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী রাজু গণিত বিভাগের এক ছাত্রীকে র‌্যাগ দেওয়ার সময় ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের আতিয়ার, মেহেদী ও বিবিএর তৃতীয় বর্ষের ছাত্র সালমান প্রতিবাদ করেন।

পরবর্তীতে রাজু ও রাকিবের নেতৃত্বে প্রথম বর্ষের জুনিয়র শিক্ষার্থীরা আতিয়ার, মেহেদী ও সালমানের উপর হামলা করে। ঘটনার জেরে ক্যাম্পাস ও কেন্দ্রীয় খেলার মাঠ এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এসময় জুনিয়র শিক্ষার্থীদের হাতে লাঞ্ছিত হয় আরও বেশ কয়েকজন সিনিয়র শিক্ষার্থী।