শপথ নিলেন জম্মু ও কাশ্মিরের প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী

ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী হলেন পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির (পিডিপি) নেত্রী মেহবুবা মুফতি। পিডিপি-বিজেপি জোট সরকারের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে আজ সোমবার শপথ নিয়েছেন তিনি।

মেহবুবাকে শপথ পড়ান রাজ্যপাল এন এন ভোরা। মেহবুবা সরকারের মন্ত্রীরাও শপথ নিয়েছেন। শপথ অনুষ্ঠানে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের পার্লামেন্ট-বিষয়ক মন্ত্রী ভেঙ্কাইয়া নাইডু, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়-বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জিতেন্দ্র সিংসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন। তবে অনুষ্ঠান বর্জন করেছে কংগ্রেস।

গত জানুয়ারিতে পিডিপি-বিজেপি জোট সরকারের মুখ্যমন্ত্রী মুফতি মুহম্মদ সাঈদ মারা যান। এরপর মুফতি-কন্যা মেহবুবা মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে অস্বীকৃতি জানান। ওই সময় বিধানসভা না ভেঙে রাজ্যে রাজ্যপালের শাসন জারি করা হয়। তখন থেকে রাজ্যে অচলাবস্থার শুরু। বিজেপির সঙ্গে জোট বেঁধে সরকার গঠনে মেহবুবার ঘোর আপত্তি ছিল। কিন্তু প্রয়াত বাবার ইচ্ছা ও চাহিদার বিরোধিতা করতে পারেননি তিনি।

মেহবুবার দাবি ছিল, জোট সরকার গঠনের সময় কেন্দ্রীয় স্তরে যে প্রতিশ্রুতিগুলো দেয়া হয়েছিল, তা পালিত হয়নি। এই প্রতিশ্রুতিগুলো নিয়ে (এজেন্ডা অব অ্যালায়েন্স) কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতিশ্রুতি না পেলে তাঁর পক্ষে সরকার গঠন সম্ভব নয়। মুফতির মৃত্যুর পর মেহবুবা বুঝতে পারেন, বিজেপির সঙ্গে হাত মেলানোয় পিডিপির জনপ্রিয়তা কমেছে। এতে সরকার গঠনে তিনি টালবাহানা করতে থাকেন। গত মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকে বরফ গলে।

বিজেপির পক্ষ থেকে বলা হয়, রাজ্যের জন্য নতুন করে কোনো প্রতিশ্রুতি তারা দিচ্ছে না। জোট সরকার গঠনের সময় মুফতি-মোদির মধ্যে যে বোঝাপড়া (অ্যাজেন্ডা অব অ্যালায়েন্স) হয়েছিল, তা অক্ষরে অক্ষরে পালন করা হবে।

৮৭ আসনের জম্মু-কাশ্মীর বিধানসভায় পিডিপির সদস্যসংখ্যা ২৭, বিজেপির ২৫।

Inline
Inline