লিভার-ফুসফুসে সমস্যা আছে কিনা জানুন চামচেই

স্বাস্থ্য ডেস্ক : সময়ের অভাবে রোগ ক্লিনিকে গিয়েও পরীক্ষা করা হয়ে ওঠে না। কিন্তু এই ঘরোয়া পদ্ধতিতেই দেখে নিন, শরীরে এই রোগ আছে কি না। পেটের সমস্যা বা ফুসফুসের সমস্যা কোনও বিরল রোগ নয়। তাই এই রোগগুলি অবহেলা করতে করতেই বড় রোগ বাসা বাঁধে শরীরে। সময়ের অভাবে রোগ ক্লিনিকে গিয়েও পরীক্ষা করা হয়ে ওঠে না। কিন্তু

খুব বেশি সমস্যা দেখা না দিলে সাধারণত আমরা ক্লিনিকে গিয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করি না। এতে করে শরীরে বাসা বাঁধা রোগ ধীরে ধীরে আমাদেরকে গ্রাস করতে থাকে। একটা পর্যায়ে যখন বুঝতে পারি তখন বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অনেক দেরি হয়ে যায়। অবহেলার কারণে অনেক সাধারণ রোগও বড় ধরনের ক্ষতির কারণ হয়ে উঠতে পারে। তাই সচেতনতার কোনো বিকল্প নেই।

আসুন ঘরে বসে ছোট্ট একটি পরীক্ষার মাধ্যমেই জেনে নেই নিজের স্বাস্থ্যের হালচাল। সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম অবশ্যই তাই বলছে।

এই পরীক্ষার জন্য প্রয়োজন শুধু একটা চামচ আর একটা স্বচ্ছ প্লাস্টিকের প্যাকেট। জিভের মধ্যে এবার সেই চামচটি চেপে ধরুন। দেখুন যাতে আপনার লালা চামচটিতে লাগে। এবারে ওই চামচ প্যাকেটে ভরুন। প্যাকেটটি টেবিল ল্যাম্পের আলোর নীচে বা সূর্যের আলোর নীচে ১ মিনিটের জন্য রেখে দিন।

১ মিনিট পরে যদি দেখেন চামচে কোনও দাগ বা গন্ধ নেই, তা হলে বুঝবেন আপনি ভিতর থেকে সুস্থ। যদি দুর্গন্ধ বেরোয়ে, তাহলে বুঝবেন লিভার বা ফুসফুসের সমস্যা আছে। মিষ্টি গন্ধ বেরলে বুঝবেন ডায়াবেটিস হয়েছে আর ঝাঁঝালো গন্ধ বেরলে বুঝবেন কিডনির সমস্যা।

হালকা হলুদ এবং সাদা রং দেখা গেলে ধরে নিতে হবে, থাইরয়েডের সমস্যা হয়েছে। হালকা বেগনি রংয়ের দাগ থাকলে বুঝবেন, বুকে সর্দি বসে আছে বা হাই-কোলেস্টেরল এবং কমলা রং বোঝায় কিডনিক সমস্যা।

চামচের এই পরীক্ষার পরে উপরে উল্লিখিত কোনও গন্ধ বা রং দেখতে পেলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।