রোমান্টিকতার শীর্ষে কাশ্মীর

প্রকৃতির ভূ-স্বর্গ বলা হয় কাশ্মীরকে। গ্রীষ্মের এই সময়টাতে যৌবন ফিরে পায় কাশ্মীরের প্রকৃতি। এই সময়টাতে কাশ্মীরকে ‘রোমান্সের শহর’ বলা হয়। ভারতের শীর্ষস্থানীয় ভ্রমণ ম্যাগাজিন লোনলি প্ল্যানেট সম্প্রতি কাশ্মীরকে ভারতের সেরা রোমান্টিক স্থান হিসেবে ঘোষণা করেছে। আর পুরো বিশ্বে দ্বিতীয় সেরা রোমান্টিক স্থান হিসেবে পরিচিত। আর প্রথম স্থানে রয়েছে সুইজারল্যান্ড।

এখানে বেড়াতে আসা পর্যটকেরা জানান, কাশ্মীরে বাতাসে রয়েছে রোমান্টিকতা। তাই বারবার এখানে ফিরে আসি।

কাশ্মীরের অস্থিরতাও ধমাতে পারে না পর্যটকদের। শিখারা বোট দিয়ে শ্রীনগরের ডাল লেক ভ্রমণ রোমান্টিকতার আরেকটি প্রতিচ্ছবি।

ভারত সরকার পর্যটকদের জন্য কাশ্মীরকে নিরাপদ এবং আরামদায়ক করার জন্য দীর্ঘদিন ধরেই প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। প্রতিদিন গড়ে চার হাজার পর্যটক শ্রীনগরে বেড়াতে আসে।

মুম্বাই থেকে কাশ্মীরে বেড়াতে আসা জায়েশ ডাগা বলেন, আমরা ১৯৯৯ সালে এখানে প্রথম আসি। ১৬ বছর পর বাচ্চাদের নিয়ে আবার এসেছি। এটি সত্যিই অসাধারণ জায়গা! এরচেয়ে ভালো জায়গা আপনি আর পাবেন না।

কাশ্মীরের দর্শনীয় স্থানগুলোর মধ্যে রয়েছে, সোনামার্গ, গুলমার্গ, পাহালগাম, ইওজমার্গ, কাশ্মীর ভ্যালি ইত্যাদি। সূত্র: এনডিটিভি।