রোবট রেস্তোরাঁয় ওড়না বিতর্কে

দেশে প্রথমবারের মতো চালু হয়েছে একটি রোবট রেস্তোরাঁ। রাজধানীর আসাদগেটের পাশে ফ্যামিলি ওয়ার্ল্ড টাওয়ারের দ্বিতীয় তলায় এই রেস্তোরাঁর অবস্থান। এখানে আগত ভোজনবিলাসীদের রসনামেটাতে খাবার পরিবেশন করছে দুটি রোবট। সচেতন নাগরিকদের মনোযোগ কেড়েছে এই রোবটগুলো। এদিকে রোবট রেস্তোরাঁ উদ্বোধনের সপ্তাহ পার হতে না হতেই বিতর্কে জড়ালো এটি। কেননা, এই রোবট রেস্তোরাঁর নারীর আদলে তৈরি রোবটের গায়ে জড়ানো হয়েছে ওড়না। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে সমালোচনা।

কেউ কেই এটাকে হাস্যকর হিসেবে দেখছেন। কেউ বা বলছেন, রোবটের আবার জেন্ডার আছে নাকি? এনিয়ে তর্কটা বেশ জমে উঠেছে।

নাট্যকর্মী মহিদুল ওড়না পরিহিত রোবট ওয়াটারের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে লিখেছেন, ‘দেখুন কি কান্ড! এসবই বাংলাদেশেই সম্ভব। রোবটেও ওড়না পরানো হয়েছে।’

মহিদুলের এই পোস্টে হা হা ইমোজি দিয়েছেন অনেকেই। কেউ বলছেন সাম্প্রদায়িতার ছোঁয়া লেগেছে রোবটের গায়েও।
এদিকে রেস্তোরাঁর ব্যবস্থাপক বলছেন, মূলত নারীর আদলে তৈরি রোবটটিকে শনাক্ত করার জন্যই গায়ে ওড়না দেয়া হয়েছে।

মূলত শিশু-কিশোরদের বিনোদনের উদ্দেশ্যেই রোবটকে দিয়ে খাবার পরিবেশন করানো হচ্ছে। অবশ্য সব বয়সী মানুষের জন্য এই রোবট একটি রোমাঞ্চকর পরিবেশ তৈরি করে।

রোবট দুটির নির্মাতা প্রকৌশলী ম্যাক্স সোয়াজ ও স্টিভেন শেনের বক্তব্য অনুযায়ী, প্রতিটি রোবটের ওজন ৩০ কিলোগ্রাম এবং উচ্চতা ১ দশমিক ৬ মিটার। রোবটদ্বয় একনাগাড়ে ১৮ ঘণ্টা কাজ করতে সক্ষম। একেকটি রোবট বানাতে আট লাখ টাকা খরচ হয়েছে।