রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের পূর্বে আরাকানকে জাতিসংঘের নিয়ন্ত্রণের দাবিতে মানববন্ধন, স্মারকলিপি প্রদান

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের পূর্বে আরাকানকে জাতিসংঘের নিয়ন্ত্রণের দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাব সম্মুখে রবিবার (১ জুন) মানববন্ধন ও জাতিসংঘ মহাসচিব বরাবর প্রেরিত স্মারক লিপি প্রদান করেন নাগরিক পরিষদ।
মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে নাগরিক পরিষদের আহবায়ক মোহাম্মদ শামসুদ্দীন বলেন, অমানবিক নির্যাতনের শিকার রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে নিয়ে মিয়ানমারের আরাকানে জাতিসংঘের বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নিজভূমে পুনর্বাসনের এবং মানবতা বিরোধী অপরাধে অংসান সুচি ও মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিচার করতে হবে।
নাগরিক পরিষদের আহ্ববায়ক মোহাম্মদ শামসুদ্দীন বলেন, জাতিসংঘ মহাসচিব বরাবর প্রেরিত স্মারক লিপিতে জাতিসংঘ বাহিনী অথবা বহুজাতিক সামরিক বাহিনী আরাকানে নিরাপত্তার দায়িত্ব নেয়ার আহ্বান জানান। তিনি আরও বলেন, জাতিসংঘ যেন মিয়ানমারকে আরাকানের রোহিঙ্গাদের বাড়ি-ঘর, স্কুল, মসজিদ, বাজার, তৈরী করতে বাধ্য করে। বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন যেন জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে হয়। জাতিসংঘ রোহিঙ্গাদের ফেরত যাওয়ার পর সকল মৌলিক ও মানবাধিকার যেন নিশ্চিত করে। তাদের পূর্ণ নাগরিক মর্যাদা ও অধিকার ফিরিয়ে দিতে আহ্বান জানান। মোহাম্মদ শামসুদ্দীন আরও বলেন, হিংস্র বাঘের খাঁচায় যেমন কোন মানুষ নিরাপদ নয় তেমনি মিয়ানমার সেনাবাহিনী নিকট রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া নিরাপদ নয়। তাদেরকে খুন, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগকারী, জাতিগত নির্মূলকারী, মিয়ানমার বাহিনীর আন্তজার্তিক অপরাধ আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যা ও মানবতা বিরোধী এবং জাতিগত নির্মূলের অপরাধে বিচার করতে হবে। বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, তুরষ্ক, মালেশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, সৌদি আরবসহ রোহিঙ্গাদের আশ্রয়দাতারা মানবতা বিরোধী অপরাধের জন্য বিচার প্রার্থী হতে হবে বলে তিনি জানান। ভারত, চীন ও রাশিয়াকে মানবতা বিরোধী অপরাধের জন্য মিয়ানমারের পক্ষ ত্যাগ করতে বাংলাদেশ জোর কূটনৈতিক তৎপরতা চালাতে হবে। মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে জাতিসংঘে কালো তালিকাভুক্ত এবং রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে বাধ্য করতে বানিজ্য নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার আহ্বানও জানান তিনি।
তিনি বলেন, মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশের যে কোন ধরনের দ্বিপাক্ষিক চুক্তি হবে আত্মঘাতি। তাই জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন চুক্তি করতে হবে। বর্ষা মৌসুমে পাহাড়ি ঢল ও বন্যার হাত থেকে শরণার্থী রোহিঙ্গাদের রক্ষায় দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করার জোর দাবী জানান।
মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন, দুর্নীতি প্রতিরোধ আন্দোলনের আহ্বায়ক মোঃ হারুন অর রশিদ খান, বাংলাদেশ মানবাধিকার আন্দোলনের সভাপতি খাজা মহিবুল্লাহ, কমান্ডার কাজী সামসুল করিম সেলিম, তারা নিউজ বিডি ডট কম এর সম্পাদক ও প্রকাশক খন্দকার মাসুদ উজ জামান, জাপান প্রবাসী বাংলাদেশীদের নেতা আবুল কামাল ইদ্রিস, ফেনী অধিকার ফোরামের আহ্বায়ক মিনহাজ উদ্দিন সেলিম, গণতন্ত্রী পার্টির ঢাকা মহানগর নেতা আতাউর রহমান বাবুল, নাগরিক পরিষদ নেতা মাহবুব খোকন প্রমুখ।(খবর বিজ্ঞপ্তি)