রূপসায় পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের

আ. রাজ্জাক শেখ, খুলনা প্রতিনিধি : রূপসায় মাদক ব্যবসায়ীদের হামলায় পুলিশ কর্মকর্তা আহতের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। গত ৫ অক্টোবর রাতে উপজেলার ঘাটভোগ ইউনিয়নের কচাতলা বাজারে এ ঘটনায় এলাকায় পুরূষ শূন্য হয়ে পড়েছে। বর্তমানে বাজারের দোকান পাট বন্ধ রয়েছে। প্রকৃত মাদক ব্যবসায়ীদের আটকের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসি। পুলিশ ইতিমধ্যে অভিযান চালিয়ে এজাহার ভুক্ত ৩১ জন আসামীর মধ্যে ৮ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, গত ৫ অক্টোবর রাতে পুটিমারী পুলিশ ক্যাম্পের এএসআই রবিউল ইসলাম ও এএসআই সাইফুল ইসলাম মাদক বিক্রেতা দ্বিপ্তীশ্বর বিশ্বাস ওরফে দিপুর বাড়ীতে অভিযান চালায়। এ সংবাদ পেয়ে উক্ত এলাকার মাদক ব্যবসায়ীদের একটি চক্র সংঘবদ্ধ হয়ে স্থানীয় কতিপয় যুবকদের সাথে নিয়ে পুলিশের উপর হামলা চালায়। হামলায় এএসআই রবিউল ইসলাম মারাত্মক জখম ও এএসআই সাইফুল ইসলাম আহত হয়। এ ঘটনায় থানা পুলিশ বাদী হয়ে ৩১ জন এজাহার ভুক্ত ও অজ্ঞাতনামা ৩০/৩৫ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করে (মামলা নং-০৩, ধারা-১৪৩/১৪৯/১৮৬/৩৩২/৩৩৩/৩৫৩)। পরবর্তীতে রূপসা থানার ওসি রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে এক বিশেষ অভিযানে উক্ত ঘটনার সাথে জড়িত ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো আনন্দনগর গ্রামের ইউসুফ লস্করের পুত্র রুবেল লস্কর (২৩), জাহিদ লস্করের পুত্র বাকির লস্কর (১৯), ইলিয়াজ লস্করের পুত্র দিদার লস্কর (১৯), ফকিরহাটের মৌভোগ গ্রামের মৃত আলী ওসমানের পুত্র সাইফুল ইসলাম শেখ (৩৫), সিন্দুর ডাঙ্গা গ্রামের নির্মল বিশ্বাসের পুত্র দ্বিপ্তীশ্বর বিশ্বাস (২৮), ঘাটভোগ গ্রামের সাত্তার খার পুত্র রবিউল খা (৩৫), সিন্দুরডাঙ্গা গ্রামের জয়দেব মন্ডলের পুত্র প্রশান্ত মন্ডল (৩২), একই গ্রামের গনেশ মন্ডলের পুত্র সুজিত মন্ডল (৩৫)। আসামীদেরকে গতকাল কোর্ট হাজতে প্রেরণ করে আদালতে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। তারপর বিজ্ঞ আদালত ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন বলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ইব্রাহিম জানান।