রাসায়নিক হামলার জন্য রাশিয়া ও সিরিয়া দায়ী : ট্রাম্প

ওয়াশিংটন (যুক্তরাষ্ট্র), ১২ এপ্রিল, ২০১৮(ডেস্ক) : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সিরিয়ায় সন্দেহজনক রাসায়নিক হামলার জন্য রাশিয়া ও সিরিয়াকে দায়ী করেছেন। তবে তিনি রাশিয়ার সাথে সরাসরি সামরিক সংঘাতে জড়ানোর বিষয়টি একেবারে উড়িয়ে দেননি।
সিরিয়ার বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকায় ওই হামলায় ৪০ জনের বেশি লোক প্রাণ হারিয়েছে। বুধবার হোয়াইট হাউস একথা জানিয়েছে। খবর এএফপি’র।
হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স দৌমায় শনিবারের ওই হামলায় রাশিয়ার কঠোর সমালোচনা করেন।
তিনি বলেন, ট্রাম্প এখনো এই হামলার জবাবে সামরিক পদক্ষেপ গ্রহণের বিষয় বিবেচনা করছেন।
সারাহ আরো বলেন, ‘প্রেসিডন্টে এই রাসায়নিক হামলার জন্য সিরিয়া ও রাশিয়াকে দায়ী করেছেন।’
ট্রাম্প সিরিয়ার ক্লোরিন ও সারিন অথবা সারিনের মতো বিষাক্ত গ্যাস উৎপাদনকারী ও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর কথা বিবেচনা করছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।
কিন্তু সিরিয়াল সবচেয়ে স্পর্শকাতর সামরিক স্থাপনাগুলো রাশিয়ান ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা দ্বারা সুরক্ষিত অথবা এমন সব স্থানে রয়েছে যেখানে রাশিয়া, ইরান ও সিরিয়ার নাগরিকরা একসঙ্গে কাজ করছে।