রাশিয়া বিশ্বকাপের স্টেডিয়াম পরিচিতি-৫

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আর কয়েকদিন পরেই পর্দা উঠবে ফুটবল বিশ্বকাপের। বিশ্বকাপের ২১তম এই আসর আয়োজনের গুরুদায়িত্ব পেয়েছে বিশ্ব মানচিত্রের সবচেয়ে বড় দেশ রাশিয়া। বিশ্বকাপকে সামনে রেখে নানা ভাবে তৈরি হচ্ছে দেশটি। তারই ধারাবাহিকতায় রাশিয়ার ১১টি শহরে তৈরি করা হয়েছে ১২টি স্টেডিয়াম। যার মধ্যে ছয়টি স্টেডিয়ামই তৈরি হয়েছে এই বিশ্বকাপের জন্য। বিশ্বকাপে স্টেডিয়াম নির্মাণ ও পুনঃসংস্কারে ব্যয় করা হয়েছে প্রায় ৫.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার!

রাশিয়া বিশ্বকাপের ১২ টি স্টেডিয়াম নিয়ে ১২ পর্বের ধারাবাহিকের তৃতীয় দিনে থাকছে কাজান অ্যারেনা স্টেডিয়ামটির খুঁটিনাটি।

কাজান অ্যারেনা, কাজান:

রাজধানী মস্কো থেকে ৫১০ মাইল দূরে তাতারাস্থান প্রদেশের কেন্দ্রে কাজানে স্টেডিয়ামের অবস্থান। ২০১০ সালে ফুটবল ক্লাব রুবিন কাজান নিজেদের জন্য স্টেডিয়াম তৈরি করতে সরকারকে প্রস্তাব দেয়। তারই ভিত্তিতে ৪৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয়ে ২০১৩ সালের মাঝামাঝি সময়ে নির্মিত হয় এই স্টেডিয়ামটি।

বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডের এবং কোয়ার্টার ফাইনালের একটি করে ম্যাচসহ টুর্নামেন্টের মোট ৬টি ম্যাচ হবে এখানে। ৪৫ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতার এ স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের উল্লেখযোগ্য ম্যাচের মধ্যে স্পেন-ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়া-জার্মানির ম্যাচটি রয়েছে।

• কাজান অ্যারেনায় অনুষ্ঠিতব্য ম্যাচ সমূহ–

১৬ জুন, ফ্রান্স বনাম অস্ট্রেলিয়া

২০ জুন, ইরান বনাম স্পেন

২৪ জুন, পোল্যান্ড বনাম কলম্বিয়া

২৭ জুন, কোরিয়া বনাম জার্মানি

৩০ জুন, রাউন্ড অব সিক্সটিন

০৬ জুলাই, কোয়াটার ফাইনাল