রাতে সিলমারা ঠেকাতে সকালে যাবে ব্যালট পেপার: ইসি সচিব

নিজস্ব প্রতিবেদক : নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, রাতে ব্যালট বাক্স ভরাসহ বিভিন্ন অনিয়ম ঠেকাতে ব্যালট পেপার ও বাক্সসহ ভোটের মালামাল সকালে পাঠানো হবে। এছাড়া সকাল ৮টার পরিবর্তে সকাল ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু হবে।

দ্বিতীয় ধাপে উপজেলা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষে সোমবার (১৮ মার্চ) রাজধানীর নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত প্রেস বিফ্রিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় ইসির যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান ও এস এম আসাদুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন।

সচিব বলেন, ভোট কেন্দ্রে যে অনিয়মগুলো হয়ে থাকে -সেগুলো দূর করার জন্য নির্বাচন কমিশন বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এর একটি হলো আমাদের প্রযু্ক্তিকে ব্যবহার করা। এ জন্য আমরা সকালে ব্যালট পেপার পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যেসব কেন্দ্র খুব কাছাকাছি সেখানে সকালে ব্যালট পেপার পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা একটি সিদ্ধান্ত এরকমভাবে গ্রহণ করেছি, আসন্ন যেসব পৌরসভায় নির্বাচন হবে সেগুলোতে ব্যালট ব্যাপার সকালে পাঠাবো এবং সকাল ৮টার পরিবর্তে সকাল ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু হবে। যেখানে সকালে প্রশ্নপত্র পাঠানো সম্ভব সেখানে অবশ্যই সকালে ব্যালট পেপার পাঠানো সম্ভব।

যেসব কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হবে সেখানেও সকালে ইভিএম পাঠানো হবে কি না -সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে সচিব বলেন, ইভিএম সাধারণত একটি নির্দিষ্ট সময়ের আগে ব্যবহার করা যায় না। সকাল ৮টার আগে এটি ওপেন করার কোনো সুযোগ নাই। আমরা যদি ভোট সকাল ৯টায় শুরু করি তাহলে এর আগে (সকাল ৯টা) ইভিএম ব্যবহারের সুযোগ নাই।

তিনি আরও বলেন, আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে সবগুলো কেন্দ্রেই ইভিএম ব্যবহারের চিন্তাভাবনা আছে। আর সকালে শুধু ইভিএম নয়, প্রিসাইডিং কর্মকর্তাও সব মালামাল নিয়ে সকালে যাবে।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, দ্বিতীয় ধাপে ১৬টি জেলায় ১১৬ উপজেলার ভোট শান্তিপূর্ণ হয়েছে। এ ধাপের ৭ হাজার ৩৯ কেন্দ্রের মধ্যে ৮টি কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করার তথ্য পেয়েছি। বাকি সবখানে কোনো অনিয়মের তথ্য পাওয়া যায়নি।