রাতের অন্ধকারে নিয়োগ পরীক্ষা অবশেষে স্থগিত

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা : পলাশবাড়ীর ও সাদুল্যাপুর দুই উপজেলার মধ্যমণি ঢোলভাঙ্গা স্কুল এন্ড কলেজের অফিস সহকারী পদে নিয়োগ যেন ভুতুরে।
রোববার রাতের আধারে গাইবান্ধা সরকারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে লোক চক্ষুর আড়ালে বিদ্যালয়ের প্রধান গেট বন্ধ রেখে নিয়োগ পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। মজার বিষয় হলো বিষয়টি নিয়ে ভুতুরে কেন্দ্র গাইবান্ধা সরকারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের সাথে তৎক্ষনাত যোগাযোগ করে তার কাছে জানতে চাওয়া হয় যে রাতের অন্ধকারে নিয়োগের বিষয়টি আপনার স্কুলের সভাপতি ও জেলা প্রশাসক জানেন কিনা আর এটা কতটা যুক্তিযুক্ত? প্রধান শিক্ষক তার কোন সদুত্তর দিতে পারেন নাই।
বিষয়টি নিয়ে জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সাথে যোগযোগ করা হলে তিনি জানান রাতের অন্ধকারে নিয়োগ পরীক্ষা অবশ্যই অন্যায় এবং আমি এখনি ব্যবস্থা নিচ্ছি। অবশ্য সাথে সাথেই জেলা প্রশাসক পুলিশ পাঠিয়ে পরীক্ষা স্থগিত করে দেয়।
বিষয়টি নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে আগত ঢোল ভাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা মোখলেছ মিয়ার সাথে কথা বললে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান আসলে আমাদের এই পরীক্ষা বিকেল ৩ টার সময় হবার কথাছিল, তবে সেই সময় মোট ৭ জন পরীক্ষার্থীর মাঝে একজন জিন্নু নামের পরীক্ষার্থী। স্থানীয় কিছু নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে বাকী পরীক্ষার্থীদের কিডন্যাপ করে রাখে মোখলেছ মিয়া আরো জানান পরে সেই কিডন্যাপ কারী জিন্নু মিয়া মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে রফাদফা করে পরীক্ষার্থী হিসেবে নিজেকে গুটিয়ে নেয় সে কারনে পরে রাতের অন্ধকারে বাধ্য হয়ে পরীক্ষা নিতে হচ্ছে।