রাজাপুরে শিশু স্কুল ছাত্র হত্যার বিচার দাবি পরিবারের

রহিম রেজা, রাজাপুর (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি : ঝালকাঠির রাজাপুরের ৪৬ নং নিজ গালুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির মোঃ রাকিব হাওলাদার (৯) কে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে দাবি, করে দ্রুত হত্যাকারী আসামীদের বিচার চেয়েছেন ওই ছাত্রের বাবা নিজ গালুয়া গ্রামের মৃত মোকলেজ হাওলাদারের ছেলে মোঃ বাবুল হাওলাদার (৪৫)। ছেলে হত্যার ঘটনায় মামলা হওয়ায় বর্তমানে আসামীরা নানাভাবে ভয়ভীতি ও হুমকিতে অসহায় হয়ে পড়েছেন তার পরিবার। সোমবার সকালে রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাব সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন স্কুল ছাত্রের বাবা। লিখিত বক্তব্যে বাবুল হাওলাদার অভিযোগ করে বলেন, গত ১৩ জুলাই ৪র্থ শ্রেণিতে পড়–য়া ছেলে মোঃ রাকিবকে স্থানীয় মৃত মীর আহম্মেদ আলীর ছেলে মীর নুরুল ইসলাম (৫৫) মীর নুরুল ইসলামের ছেলে মীর রিয়াদ হোসেন (২৪) ও মীর মেহেদী হাসান রাব্বি (২৭) ও মীর নুরুল ইসলামের স্ত্রী নিরু বেগমসহ প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীরা নির্মমভাবে হত্যা করে আসামীদের লাশ লুকিয়ে রাখে। পরে বাড়ির নির্জন বাগানে থেকে ১৪ জুলাই পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। পরে বাবুল ২২ জুলাই রাজাপুর থানায় হত্যার ধারায় মামলা করি। পুলিশ ৪নং আসামী নিরু বেগমকে পুলিশ গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করলেও অন্যান্য আসামীরা এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য বাদী ও স্বাক্ষীদেরসহ পরিবারের সকলবে হত্যাসহ বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে। এছাড়াও আরও আসামীরা থানায় টাকা দিয়ে পোষ্ট মর্ডাম রিপোর্ট তাদের পক্ষে নেয়া এবং মামলার ফাইনাল রির্পোট দেয়াবে বলে এলাকার লোকজনের কাছে বলে বেড়াচ্ছে। এমতাবস্থায় বাদি ও মামলার স্বাক্ষীরাসহ পরিবারের সকলে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তিনি সকলের সহযোগীতা কামনা করেছেন। রাজাপুর থানার ওসি শেখ মুনীর উল গিয়াস জানান, বর্তমানে মামলাটি সিআইডিতে নিয়ে গেছে। হুমকির বিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি